মেইন ম্যেনু

‘দেশে উন্নয়ন বিরোধী মহল চক্রান্ত করছে’

দেশে উন্নয়ন বিরোধী একটি মহল চক্রান্ত করে যাচ্ছে বলে দাবি করেছেন আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘বঙ্গবন্ধু একাডেমীর আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।
হাছান মাহমুদ বলেন, বিরোধী জোট এখন আবার নতুন খেলায় মেতে উঠেছে। কারণ শেখ হাসিনার সরকার দেশে খাদ্য ঘাটতি কমাতে সক্ষম হয়েছে। বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত এখন ডিজিটাল বাংলাদেশ।

এমনকি মোবাইলে নিমিষেই গহীন দ্বীপেও টাকা পৌঁছে যাচ্ছে। ১৬ কোটি মানুষের দেশে ১৫ কোটি মানুষই মোবাইল সিম ব্যবহার করে। এই উন্নয়নমুখী দেশের বিরুদ্ধে একটি মহল চক্রান্ত করে যাচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, যারা নির্বাচনের আগে ও পরে সহিংসতা-নৈরাজ্যে নেমেছিল, তারাই এখন আবার নতুন খেলায় মেতে উঠেছে।

তিনি আরো বলেন,‘আমরা বলছি, সকলকে নিয়ে আমরা হত্যা-গুমের রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসবো। যারা হত্যাগুমের রাজনীতি করছে তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
হত্যা-গুমের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দল ও সরকার আন্তরিক বলেও দাবি করেন তিনি।

‘হত্যা-গুমে বিএনপি নেতাদের সর্ম্পৃক্ততা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন’ উল্লেখ করে বলেন, ‘আজকে গুমের অভিযোগে তিনজন র‌্যাব কর্মকর্তার বরখাস্ত হলে। কিন্তু এর আগে যারা প্রকাশ্যে চোরাগুপ্তা হামলার নির্দেশ দিয়েছেন তাদেরও বিচারের আওতায় আনতে হবে।’

বক্তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জামাতা এবং প্রধানমন্ত্রী ও আ.লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বামী ড. ওয়াজেদ মিয়ার মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁর আত্মার মাগফেরাত  কামনা করেন।

সংগঠনের উপদেষ্টা চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন আ.লীগের  কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সুজিত রায় নন্দী, উপ-কমিটির সহ সম্পাদক গোলাম সরওয়ার কবির, আসাদুজ্জামান দূর্জয়, সম্যবাদী দলের নেতা হারুণ চৌধুরী প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই