মেইন ম্যেনু

দেখবো পুলিশের গুলি, না আমাদের সাহস বেশি : মির্জা আব্বাস

রাজপথে থাকার ঘোষণা দিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, আমরা রাজপথে অবস্থান নেবো, পুলিশের গুলি শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা থাকবো। দেখবো পুলিশের গুলি বেশি, না আমাদের বুকে সাহস বেশি।

শনিবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিয়ার্স ইউনিস্টিটিউটে এলডিপি ঢাকা মহানগরের আয়োজনে এলডিপি ঢাকা মহানগরের বর্ধিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। আইনশৃঙ্খলাবাহিনী দিয়ে আন্দোলন দমন করা যায় না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আব্বাস বলেন, ‘বিএনপির আন্দোলন হবে নিরস্ত্র ও শান্তিপূর্ণ। তবে সরকারকে হুঁশিয়ারী করে দিতে চাই সীমালঙ্ঘণ করবেন না, সীমালঙ্ঘণকারীকে আল্লাহ ক্ষমা করেন না।’

প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন করে আব্বাস বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জকে রক্তাক্ত করেছে কে? দিনে দুপুরে লগি বৈঠা দিয়ে কারা মানুষ হত্যা করেছে, গুম-খুন কারা করেছে। সবই আওয়ামী লীগ করেছে।’

ঢাকা মহানগরের কর্মীদের উদ্দেশে আব্বাস বলেন, ‘আমার কাছে আপনারা সবাই বেশি আশা করছেন এটাই আমার ভয়। আপনারা যদি কম আশা করতেন তাহলে আমি বেশি দিতে পারতাম। এখন যদি বেশি দেই তাও কম মনে হবে। অবৈধ সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য যা যা করা দরকার সবই করছে। আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে তখই গণতন্ত্র হরণ হয়। এটাই আওয়ামী লীগের চরিত্র।’

ঢাকা মহানগর বিএনপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ঢাকা মহানগরের কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। সবাই সংগঠিত হচ্ছে একটি অহিংস আন্দোলনের জন্য।’

ঢাকা মহানগর আহ্বায়ক কমিটি প্রসঙ্গে আব্বাস বলেন, ‘নেতা-কর্মীরা আমার কাছ থেকে অনেক আশা করছে এই জন্য ভয় পাচ্ছি। কাউন্সিল যখন হলো তখন বিএনপির দুর্যোগের সময়। এই দুর্যোগ মানুষ সৃষ্টি দুর্যোগ। দেশের মধ্যে ও বাইরে ষড়যন্ত্র হচ্ছে এটা আমাদের মোকাবেলা করতে হবে।’

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি এম এম খালেদ সাইফুল্লাহর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- লিবারেল ডেমোক্রিটিক পার্টির সভাপতি কর্নেল অলি আহমদ, সংগঠনের মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ, যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাৎ হোসেন সেলিম, সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. ইকবাল হোসেন তালুকদার প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই