মেইন ম্যেনু

দুই বছরের ছেলেকে বেঁধে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও

দুই বছরের শিশুপুত্রকে দেয়ালে বেঁধে রেখে সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করার জন্য গ্রেপ্তার হলেন মা। খবরে প্রকাশ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওহায়ো নিবাসী শায়লা রুডল্ফের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি নিজের দুই বছরের ছেলেকে হাত-পা টেপ দিয়ে বেঁধে দেওয়ালে আটকে রেখেছেন। এখানেই শেষ নয়। ওই দৃশ্যকে ভিডিও করে, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ-স্ট্রিম করেন ১৮ বছরের যুবতী।

ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই নড়েচড়ে বসে পুলিশ।

গোয়েন্দারা ২০ মিনিটের ওই ভিডিও ফুটেজ খতিয়ে দেখেন। সেখানে দেখা যায়, শিশুটি কাঁদছে। এরপরই শায়লা তাকে দেওয়ালে টেপ দিয়ে বেঁধে রাখছেন। শিশুর হাত-পা এমনকী মুখও টেপ দিয়ে বাঁধা। এরপর, সেই দৃশ্য দেখিয়ে শায়লা ‘দর্শকদের’ বোঝাচ্ছেন, তাঁর ছেলে কতটা অবাধ্য! তাঁর আরও দাবি, সন্তানদের না মেরে এভাবে হাত-পা দেওয়ালের সঙ্গে বেঁধেও তাদের শাস্তি দেয়া যায়। এই ভিডিও পোস্ট হওয়ার পর শিশু কল্যাণ দপ্তরের পক্ষ থেকে শায়লার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের সামনে ওই মহিলা দাবি করেন, পুরোটাই নাকি মজা করা হয়েছিল।

এরপর আরও একটি ভিডিও পোস্ট করেন তিনি। সেখানে আবার দেখা যায়, শিশুকে তিনি ঘরের কোনায় দাঁড় করিয়ে রেখেছেন। এমনকী, তাঁকে বলতেও শোনা যায়, প্রয়োজনে ছেলেকে উল্টোভাবে ঝুলিয়েও রাখতে পারেন। এ ঘটনায় শায়লাকে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয়েছে।-এবিপি আনন্দ






মন্তব্য চালু নেই