মেইন ম্যেনু

দুঃশাসন বন্ধ না হলে বিদায় হবে বেদনাদায়ক : এমকে আনোয়ার

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার সরকারকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসেছেন, দুঃশাসন বন্ধ করুন, তা না হলে আপনাদের বিদায় হবে বেদনাদায়ক।’

জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে শুক্রবার স্বাধীনতা ফোরাম কেন্দ্রীয় সংসদ আয়োজিত ‘নিরাপত্তা সংকটে নাগরিক জীবন: উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এম কে আনোয়ার বলেন, ‘নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের সঙ্গে বিএনপি জড়িত নয়, জড়িত থাকলে তাদের গ্রেপ্তার করুন। তদন্ত এবং মামলার এজাহারে আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাদের নাম এসেছে। তাদের ধরে বিচার করুন।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকার রাজনৈতিক বিবেচনায় সাড়ে সাত হাজার মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। এরমধ্যে এমন কিছু মামলা রয়েছে যেগুলো প্রত্যাহারের কারণে আজকে আইনশৃঙ্খলার এতটা অবনতি।’

বিএনপি নির্বাচনে না যাওয়া প্রসঙ্গে দলের স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘বিএনপির নির্বাচনে যাওয়ার পরিস্থিতি ছিল না। নির্বাচনে গেলে দেশের পরিস্থিতি আরো খারাপ হতো। সে সময় বিএনপির বেশির ভাগ সিনিয়র নেতাকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটক রাখা হয়েছিল।’

এমকে আনোয়ার বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সংবিধান এমনভাবে পরিবর্তন করেছে যেখানে গণভোটের বিধানটিকেও উঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

দলীয়করণের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের মৌলিক স্তম্ভগুলো ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

আলোচনা সভায় সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিচারপতি ও সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার আব্দুর রউফ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর অধ্যাপক ড. মাহবুবুল্লাহ, মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন, যুবদলের সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই