মেইন ম্যেনু

দিনাজপুর মধ্যপাড়া কঠিন শিলা পাথর উত্তোলন ২০ দিন ধরে বন্ধ

শুধুমাত্র পাথর বিস্ফোরিত করার এক্সপ্লোসিভ সংকটের কারণে ২০ দিন ধরে উৎপাদন বন্ধ রয়েছে দেশের একমাত্র মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনির। এতে চাহিদানুযায়ী গ্রাহকদের পাথর সরবরাহ করতে পারছে খনি কর্তৃপ।
এতে করে বিপুল অংকের অর্থ লোকসান গুণতে হচ্ছে খনি কর্তৃপকে।
এক্সপ্লোসিভের অভাবে হাত গুটিয়ে বসে রয়েছে খনির রণাবেণের দায়িত্বে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান জার্মানিয়া ট্রাস্ট কনসোর্র্টিয়াম কোম্পানী (জিটিসি)।
খনি সূত্রে জানা গেছে, গত দেড় বছর থেকেই ডিনামাইট (এক্সপ্লোসিভ)-এর সংকট দেখায় খনির ভূগর্ভ থেকে পাথর উত্তোলন মারাত্মকভাবে হ্রাস পায়। এই অবস্থার মধ্যেই মধ্যে খনিটির উৎপাদনসহ রনাবেনের দায়িত্ব নেয় বেলারুশ ভিত্তিক জার্মানিয়া ট্রাষ্ট কনসোর্টিয়াম কোম্পানী (জিটিসি)। জিটিসি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে পুরোদমে উৎপাদন শুরু করে। তবে ডিনামাইট (এক্সপ্লোসিভ) শেষ হওয়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে পাথর উত্তোলন পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। এতে খনিটি প্রতিদিন ১হাজার ২০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টন পাথর উৎপাদন থেকে বঞ্চিত হওয়ার পাশাপাশি আর্থিক লোকসানের মুখে পড়েছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জিটিসি।
জিটিসি কর্তৃপ বলছেন, খনি থেকে পাথর উত্তোলনের জন্য ব্যবহারিত ডিনামাইট (এক্সপ্লোসিভ) সরবরাহ করার দায়িত্ব মধ্যপাড়া গ্রানাইড মাইনিং কোম্পানী লিমিটেড কর্তৃপরে। এবং সরকারি প্রতিষ্ঠান ছাড়া এই শক্তিশালী ডিনামাইট (এক্সকুসিভ) আমদানী বা বহন করার অনুমতি অন্য কারো নেই বলেই জিটিসি’র পে এটি সংগ্রহ বা আনা সম্ভব হচ্ছে না।
মধ্যপাড়া গ্রানাইড মাইনিং কোম্পানীর মহা-ব্যবস্থাপক (অপারেশন) মির আব্দুল হান্নান বলেন, ডিনামাইট (এক্সপ্লোসিভ) সংকটের কারণে খনির উৎপাদন বন্ধ থাকায় সার্বিকভাবে খনিটি তিগ্রস্ত হচ্ছে। তবে জিটিসিকে ডিনামাইট (এক্সপ্লোসিভ) সরবরাহের সার্বিক পদপে নেয়া হয়েছে যা কিছুদিনের মধ্যে সমস্যাটি সমাধান হবে।






মন্তব্য চালু নেই