মেইন ম্যেনু

তেল-গ্যাস ব্যবসায়ী হচ্ছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে রেক্স টিলারসনই হতে যাচ্ছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদটি দীর্ঘদিন ধরেই আলোচনায় ছিল, কে বসতে পারেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। অবশেষে সিনেটে উত্তপ্ত লড়াই শেষে রেক্স টিলারসনের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়। এর আগে রাশিয়ার সাথে ব্যবসায়িক সু-সম্পর্ক থাকার কারণে তার বিরুদ্ধে অবস্থান ছিল অনেকের। যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস ভিত্তিক বিশ্বের একটি বড় বহুজাতিক তেল ও গ্যাস কোম্পানি এক্সনমোবিল এর এই প্রধান নির্বাহী রেক্স টিলারসন রিপাবলিকান পার্টিতে প্রচুর অর্থ অনুদান দিয়ে এসেছেন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে তার ভালো সম্পর্ক দেশে বিতর্কের সৃষ্টি করে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার যৌথ মালিকানাধীন তেল কোম্পানি এক্সন নেফতেগাস এর একজন ডিরেক্টরও ছিলেন রেক্স টিলারসন।

যুক্তরাষ্ট্রের ফরেইন রিলেশনস্ কমিটির ১১-১০ ভোটে রেক্স টিলারসনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এক্সনমোবিল এর সাবেক প্রধান নির্বাহী রেক্স টিলারসনের মনোনয়ন নিয়ে সিনেটর মার্কো রুবিওর ‘না’ ভোট হয়তো ঠেকিয়ে দিতে পারত। রাশিয়ার সাথে সম্পর্ক এবং মানবাধিকার প্রশ্নে তার বিরুদ্ধে সমালোচনা ছিল। তবে সোমবার মার্কো রুবিও জানিয়ে দিয়েছেন তার সমর্থন টিলারসনের পক্ষেই।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন ইতোমধ্যেই পূর্ব প্রতিশ্রুতি মোতাবেক টিপিপি চুক্তি থেকে সরে এসেছে। নির্বাচনী প্রচারণার সময় ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ১২টি দেশের মধ্যে বাণিজ্য চুক্তি ট্রান্স-প্যাসিফিক পার্টনারশিপ (টিপিপি) বাতিল করে দেবেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প একটি নির্বাহী আদেশে সে চুক্তিটি বাতিল করেন। এটা হচ্ছে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার পলিসির ওপর প্রথম আঘাত। সূত্র : বিবিসি, সিএনএন, উইকিপিডিয়া






মন্তব্য চালু নেই