মেইন ম্যেনু

তারেক রহমানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

২০১৫ সালে সরকারবিরোধী আন্দোলন চলাকালে গাজীপুরে গাড়িতে পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ ও ভাঙচুর মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. ফজলে এলাহি ভূঞা এ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

এই মামলা সূত্রে জানা যায়, বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর দেশকে অস্থিতিশীল করার লক্ষ্যে অর্থ যোগান ও উস্কানি দিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

তিনি লন্ডনে অবস্থান করে গাজীপুরের শিল্পাঞ্চলে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার জন্য ২০১৫ সালের ২১ জানুয়ারি গাজীপুরের হোতাপাড়ায় একটি বাসে কেরোসিন ও পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করতে সহযোগিতা করেছেন। এমন অভিযোগে এএসআই দিলীপ চন্দ্র সরকার বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাটি করেন।

মামলার তদন্ত শেষে একই বছরের ২৫ আগস্ট পুলিশ তারেক রহমান, তার সহযোগী লুৎফর রহমান বাদল ও গাজীপুর সিটি মেয়র মান্নানের ছেলে মঞ্জুরুল আহসান রনিসহ বিএনপির ৩২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

পরে দীর্ঘদিন মামলা চলাকালে আসামিরা পলাতক থেকে আদালতে হাজিরা না দেয়ায় মঙ্গলবার আদালত তারেক রহমান, লুৎফর রহমান বাদল ও মঞ্জুরুল আহসান রনিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

প্রসঙ্গত, আদালতে অভিযোগপত্র দেয়ার পর ২০১৫ সালের ২৫ আগস্ট গাজীপুরের পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশিদ বিপিএম (বার) তার কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই