মেইন ম্যেনু

তারেক জিয়া উন্মাদ ও গণ্ডমূর্খ : হানিফ

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে উন্মাদ ও গণ্ডমূর্খ বলে অভিহিত করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল-আলম হানিফ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারের টিসিবি ভবনে নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বলেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নাকি ব্যার্থ রাজনীতিক। আর জিয়াউর রহমান নাকি সফল রাজনীতিবিদ। এমন মন্তব্য তার মতো মূর্খের মুখেই শোভা পায়।’

এসময় হানিফ একইসঙ্গে এই উন্মাদ ও গণ্ডমূর্খের সংবাদ মিডিয়াতে প্রকাশ না করারও আহ্বান জানান।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হানিফ বলেন, ‘তারেক রহমানের বিরুদ্ধে যেসব মামলা রয়েছে। তার কার্যক্রম চলছে, সময় হলেই আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

বুধবার মুন্সিগঞ্জে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার র‌্যাব বিলুপ্তির দাবির সমালোচনা করে হানিফ বলেন, ‘২০০৪ সালে বেগম খালেদা জিয়াই র‌্যাব সৃষ্টি করেছিলেন। তিনি মূলত আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার জন্যই এই র‌্যাব সৃষ্টি করেছিলেন। যেহেতু র‌্যাব জামায়াত-শিবিরের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। এ কারণেই জামায়াত র‌্যাব বিলুপ্তির জন্য বিএনপিকে চাপ দিচ্ছে। তাই তিনি (খালেদা) বারবার র‌্যাব বিলুপ্তির জন্য দাবি করছেন।’

নারায়ণগঞ্জের ৭ খুনের ঘটনার দায়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিতে হবে বেগম খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্যের প্রতিবাদে হানিফ বলেন, ‘আপনি যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন সে সময়ে আওয়ামী লীগের ২৬ হাজার নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছিল। শাহ এম এস কিবরিয়া, আহসান উল্লাহ মাস্টারসহ ২০০৪ সালে ২১ আগস্ট ২৪ জন নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছিল। তাই এই দায়ভার আগে আপনাকে নিয়ে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। না হলে এমন কথা বলার কোনো অধিকার আপনার নেই।’

খালেদা জিয়ার উদ্দেশে হানিফ আরো বলেন, ‘আপনি দুর্নীতির কথা বলেন! আপনার সরকারের আমলে দেশ দুর্নীতিতে ৫ বার চ্যাম্পিয়ান হয়েছিল। তাই এসব কথা বলার আগে নিজের কথা বিবেচনা করুন। আপনার দুর্নীতিবাজ পুত্র তারেক রহমান সরকারের মধ্যে সরকার গঠন করে লুটপাট করেছে। আর আজকে লন্ডনে বসে গণ্ডমূর্খের মতো কথা বলছে।’






মন্তব্য চালু নেই