মেইন ম্যেনু

তবে কি প্লুটোয় প্রাণ আছে! ঘোষণার পথে নাসা

সৌর জগতের নবম গ্রহকে নিয়ে কৌতূহলের শেষ নেই মহাকাশ বিজ্ঞানীদের। কারণ, এই সেদিনও প্লুটো সম্পর্কে প্রায় কিছুই জানা ছিল না তাঁদের কাছে। সম্প্রতি মহাকাশযান থেকে তোলা প্লুটোর কিছু ছবি বিজ্ঞানীদের কৌতূহল কয়েক গুণ বাড়িয়ে দেয়।

যাকে ঘিরে এত কৌতূহল, সেই প্লুটো তো অবিকল পৃথিবীরই ফোটোকপি! চড়াই-উতরাই, পাহাড়-নদী আলাদা করে চিনিয়ে না-দিলে, পৃথিবী বলে ভ্রম হতেই পারে।

প্লুটো নিয়ে নাসার সেই ঘোর কাটার আগে আর এক চমক সম্ভবত অপেক্ষা করছে। প্লুটোয় যে প্রাণ থাকতে পারে, প্রথম পাওয়া প্লুটোর ছবি দেখেই সেই আভাস দিয়েছিল নাসা। খুব শিগগির প্লুটো নিয়ে আরও বড় চমকপ্রদ কিছু ঘোষণা করতে চলেছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। মঙ্গলে যে ভিনগ্রহীদের সন্ধানে ছানবিন শুরু করেছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা, তবে কি তাঁর খোঁজ মিলল প্লুটোয়?

খুব সম্ভবত তাই। মানে প্লুটোয়া এলিয়েন দেখে থাকতে পারেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। নাসার এক প্রবীণ বিজ্ঞানীর কথায় তেমন ইঙ্গিতই মিলেছে। তবে বিশেষ কিছুই ভেঙে বলতে চাননি তিনি, প্লুটোয় নিউ হরাইজনস মিশনের প্রধান ড. অ্যালান স্টার্ন।

সৌরজগতের ‘রহস্যজনক’ বহু দূরের এই গ্রহটিকে তিনি ‘অ্যালাইভ’ বলে উল্লেখ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের কাছে। তাঁর এই ‘অ্যালাইভ’-এর সূত্র ধরেই চলছে বিস্তর কাটাছেঁড়া।

ধরেই নেওয়া হচ্ছে প্রাণের সন্ধান মিলেছে। এবং হতে পারে সেটা এলিয়েন। সেই কৌতূহল জিইয়ে রেখেই তিনি জানিয়েছেন, তিনি কিছু বলতে পারবেন না। সেই অনুমতি তাঁকে দেওয়া হয়নি। সময়মতো নাসাই ঘোষণা করবে। কিন্তু, সেই ঘোষণায় যে বড় চমক অপেক্ষা করছে, তা জানাতে ভোলেননি অ্যালার্ন।
সূত্র : এই সময়






মন্তব্য চালু নেই