মেইন ম্যেনু

‘ডিজিটাল পদ্ধতিতে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করা হবে’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যেভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে আমরা বিভিন্ন কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করছি, সেই একইভাবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। এমন অনেক আসামী থাকেন, যাদের আনা নেয়া করা খুবই ঝামেলার কাজ, সেই জন্যই আমরা এমন পদ্ধতির কথা ভাবছি।

রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এসময় প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, অর্থের অভাবে কেউ আইনী সহায়তা থেকে দূরে থাকবে না। কারাগারের সঙ্গে আমাদের পরিবারের একটি যোগসূত্র আছে। আমি বাবাকে দেখেছি একা কারাগারে তাকে দিনের পর দিন বন্দী করে রাখা হয়েছে। আমার ভাগ্যেও সেটা ‍জুটেছিলো। কারাগারের সঙ্গে আমাদের পরিবারের সম্পর্ক। দেশের কারাগারে এমন কিছু মানুষ বন্দী থাকেন যারা জানেই না যে তারা কি কি আইনী সহায়তা পেতে পারে। তাছাড়া বন্দীরা বিশেষ করে মেয়েরা নানানভাবে নিগৃহীত হয়। সেটা যেন আর না হয় সেই চেষ্টা আমরা করছি।

জনগণই ক্ষমতার মালিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণের সুবিচার যেন নিশ্চিত হয় সেই চেষ্টা আমরা করছি। এসময় তিনি বিচারক ও আইনজীবীদের সেবার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনটি স্তম্ভের মধ্যে যেন দূরত্ব সৃষ্টি না হয় সেটাও চান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, দেশের মানুষের অধিকার সুরক্ষিত করতে যা যা করা দরকার বর্তমান সরকার তার সবই করছে।






মন্তব্য চালু নেই