মেইন ম্যেনু

ঝিনাইদহে ‘জঙ্গি আস্তানার’ বাড়ির মালিক ধর্মান্তরিত

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি গ্রামে ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে যে বাড়িটিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালাচ্ছে, সেটির মালিক ওই গ্রামের আব্দুল্লাহ। দুই কক্ষবিশিষ্ট টিনশেডের বাড়িটির মালিক চার বছর আগে ধর্মান্তরিত হন। এর আগে তিনি সনাতন ধর্মাবলম্বী ছিলেন।

ইসলাম গ্রহণের আগে তার নাম ছিল প্রবাদ কুমার। তার বাবার নাম চৈতন্য বয়াতি বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

হিন্দু থাকাকালে তার স্ত্রী ও একটি ছেলেসন্তান ছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর তিনি পোড়হাটি ধানহাড়িয়া চুয়াডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল লতিফের মেয়েকে বিয়ে করেন। এরপর পৈত্রিক ভিটে ছেড়ে স্ত্রীকে নিয়ে নিজের এই নতুন বাড়িতেই থাকতেন। আব্দুল্লাহর বর্তমান স্ত্রী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হতেন না। বিশেষ দরকারে বাড়ির বাইরে এলে তাকে হিজাব পরা অবস্থায় দেখা যেত বলে প্রতিবেশীরা জানান।

প্রতিবেশী আকরাম হোসেন জানান, আব্দুল্লাহ কখনো কখনো ছোট ছোট ব্যবসা করতেন। আবার কখনো কখনো নসিমন চালাতেন। কিন্তু তিন থেকে চার মাস হলো তাকে একটি মোটরসাইকেলে চড়ে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়।

জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে শুক্রবার বিকেল ৫টা থেকে বাড়িটি ঘিরে রাখেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। রাত সাড়ে ১০টার সময় খুলনা রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি দিদার আহম্মদ জানান, অভিযান আজকের মতো স্থগিত করা হয়েছে। শনিবার সকালে ফের অভিযান শুরু হবে। বাড়িটিতে প্রচুর বিস্ফোরক রয়েছে বলে তিনি গণমাধ্যমকে জানান।

এরপর শনিবার সকাল পৌনে ৯টায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা বাড়িটিতে অভিযান শুরু করেন।

এর আগে বাড়িটি থেকে একটি পিস্তল ও কিছু বিস্ফোরক, গ্রেনেড ও সুইসাইডাল ভেস্ট পাওয়া গেছে বলে জানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।






মন্তব্য চালু নেই