মেইন ম্যেনু

বিরল রোগ প্রজেরিয়া

জয়পুরহাটে ১৮ বছরের কিশোর বন্দী ৬৫ বছরে

ভারতে ‘পা’ নামের একটি হিন্দি সিনেমা মুক্তি পেয়েছিলো। ছবির মূল ভূমিকায় ‘অরো’ নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন অমিতাভ বচ্চন। আট বছরের এক শিশু বন্দী ৮০ বছরের এক বৃদ্ধের শরীরে। এই সিনেমার মাধ্যেমে প্রজেরিয়া নামের এক অতি বিরল জিনগত অসুখের নাম সাধারণ মানুষের অনেকেই জানতে পারে। এ অসুখে আক্রান্ত শিশুরা অকাল বার্ধক্যের শিকার হয়। এবার বাস্তবেও ‘অরোর’ দেখা মিলেছে।

তবে ভারতে নয়। দেশের জয়পুরহাটের কালাই পৌর এলাকার দুরঞ্জ মহল্লায়। এখানে দিনমজুর আজিবর রহমানের ছেলে তুহিন ইসলাম রাজু এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। এখানে ১৮ বছরের কিশোর বন্ধী ৬৫ বছরে।

রাজুকে দেখতে ৬৫ বছরের বৃদ্ধের মতোই মনে হয়। আসলে তার বর্তমান বয়স মাত্র ১৮ বছর। রাজু সম্পূর্ণ ব্যতিক্রমি ও জটিলতম প্রজেরিয়া (জন্মগত বৃদ্ধ) নামক রোগে আক্রান্ত।

চিকিৎসকরা জানান, বর্তমানে সারা পৃথিবীতে মাত্র ৮০ জন প্রজেরিয়া আক্রান্তদের মধ্যে অন্যতম সে। প্রতি এক মিলিয়ন শিশুর মধ্যে একজন প্রজেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। প্রজেরিয়া আক্রান্তরা খুব বেশি হলে কুড়ির চৌকাঠ পেড়নোর পরেই মারা যায়। জন্মের কয়েক মাসের মধ্যেই এদের শরীরে বার্ধ্যকের লক্ষণ দেখা যায়। কুঁচকে যায় চামড়া। শুরু হয় অস্বাভাবিক বৃদ্ধি। চুল উঠে যেতে শুরু করে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এই বার্ধক্য পদ্ধতি দমানো বা এই অসুখ নিরাময়ের কোনো ওষুধ তৈরি হয়নি।

জয়পুরহাটের তুহিন ইসলাম রাজুর শুধুমাত্র চেহারা কিংবা শারিরিক পরিবর্তনই নয়, বৃদ্ধের মতোই চোখে ঝাপসা দেখাসহ দুর্বলতায় কাটছে তার জীবন। বয়সে কিশোর হলেও শারীরিক সবকিছুই হয়ে যায় বৃদ্ধের মত। শরীরে কোনো বল শক্তি থাকে না। চলাফেরাও বার্ধক্য।

ছোটকালে বিষয়টি কিছুটা অস্বাভাবিক মনে হলেও অভিভাবকদের ধারণা ছিল বয়স বৃদ্ধি পেলে হয়তো শরীর স্বাভাবিক হয়ে যাবে। কিন্তু চিকিৎসকরা জানিয়েছেন সেটি সম্ভব নয়।

প্রজেরিয়া আক্রান্ত রাজু বলেন, ‘শরীরের এমন অবস্থার জন্য এলাকার ও প্রতিবেশীদের অনেকেই আমাকে নিয়ে ঠাট্টা-তামাশা করে। আমাকে নিয়ে উপহাস করেন। অনেকেই প্রতিশ্রুতি দিলেও শেষ পর্যন্ত কেউ কোনো প্রকারের সাহায্য-সহায়তা করেনি। খেয়ে না খেয়ে শুধু বসে শুয়ে দিন কাটে। প্রতিবন্ধী ভাতার জন্য অনেকের কাছে বারবার ধর্না দিয়েও পাইনি।’

এ ব্যাপারে রাজুর পিতা আজিবর রহমান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিনা খরচে কয়েকমাস ধরে চিকিৎসা করালেও রাজু সুস্থ হয়নি। এ ছাড়া আমি গরীব মানুষ, দু-বেলা খাবার জোটে না। কিভাবে উন্নত চিকিৎসা করাব। এভাবেই যতদিন বাঁচে, ততদিন হয়তো কষ্ট, যন্ত্রনা আর উপহাস সহ্য করতে হবে তাকে।’

সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল কাদের বলেন, রাজু প্রজেরিয়া আক্রান্ত প্রথম রোগী। এ রোগ সাধারণত দেখা যায় না। তবে ভাল হবার সম্ভাবনা প্রায় অনিশ্চিত বলেই ধরা যায়।






মন্তব্য চালু নেই