মেইন ম্যেনু

চুয়াডাঙ্গায় বোন-ভাগ্নের হামলায় ভাই নিহত

জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় একজনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে তার বোনের ছেলেরা।
আলমডাঙ্গা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার রাতের বেলা উপজেলার হারদী গ্রামের এ ঘটনায় একই পরিবারের চার সদস্যসহ পাঁচ জন আহত হয়েছেন।
নিহত সফিউদ্দিন (৩৮) ওই গ্রামের হারেজ উদ্দিনের ছেলে।
আহতদের আলমডাঙ্গার হারদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এরা হলেন-সফিউদ্দিনের দুই ভাই আজিবর রহমান, মজিবর রহমান ও তাদের স্ত্রী বাচেনা খাতুন, ফরিদা খাতুন এবং প্রতিবেশী আতিয়ার রহমান।
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা রফিকুল বলেন, জমিজমা নিয়ে সফিউদ্দিন ও তার ভাইদের সঙ্গে বোন বেলী খাতুন ও তার দুই ছেলে মো. সোনা ও মিনারুল ইসলামের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরেই বিরোধ চলছিল।
সোমবার রাত ৮টার দিকে ৮/১০ জন সহযোগীকে নিয়ে বেলী ও তার দুই ছেলে সফিউদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালায়। তারা সফিউদ্দিনসহ বাড়িতে থাকা অন্যদের লাঠি দিয়ে পেটায় এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।
আহত ছয় জনকেই হারদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সফিউদ্দিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে নেয়া হয় ওই রাতেই। পরে রাত ১০টার দিকে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।






মন্তব্য চালু নেই