মেইন ম্যেনু

চার পা এবং দুই পুরুষাঙ্গ সমেত এই ভারতীয় শিশুর রহস্য কী? সবটাই কি দৈবলীলা?

প্রকৃতির রাজ্যে এমন অনেক ঘটনাই ঘটে যার ব্যাখ্যা অনেক সময়ে বিজ্ঞানও দিতে পারে না। কর্ণাটকের রায়চুরের ধায়সুগুরে প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সেন্টারে সম্প্রতি জন্ম নিল এমন এক শিশু যাকে দেখে চোখ কপালে উঠল অভিজ্ঞ চিকিৎসকদেরও। কারণ এই বিচিত্র শিশুটির শরীরে চারটি পা এবং দু’টি পুরুষাঙ্গ রয়েছে।
শিশুটির বাবা-মা ললিতাম্মা (২৩) এবং চেন্নাবাসব (২৬) রায়চুরের পুলাদিন্নি গ্রামের বাসিন্দা। জন্মের পরে শিশুটিকে বিজয়নগর ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস (ভিআইএমএস)-এর নিওনেটাল কেয়ার-এ রাখা হয়েছে।

গত ২১ জানুয়ারি ভোর ৪টে ২৩ মিনিটে শিশুটি জন্মগ্রহণ করে। সেই সময়ে ধায়সুগুরের হাসপাতালে ডিউটিতে ছিলেন ডাক্তার বিরুপাক্ষ টি। তিনি জানিয়েছেন, সুস্থ এবং স্বাভাবিক ভাবে ডেলিভারি হলেও, শিশুটির বিচিত্র চেহারা দেখে তাকে তড়িঘড়ি ভিআইএমএস-এ পাঠানোর ব্যবস্থা করেন তিনি।

ভিআইএমএস-এ শিশুটির দেখভাল করছেন ডাক্তার দিবাকর গাড্ডি। তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, শিশুটিকে অপারেশনের মাধ্যমে স্বাভাবিক করে তোলার চেষ্টা করার কথা ভাবা হচ্ছে। তার জন্য একটি চিকিৎসক-দলও গঠিত হয়েছে। ‘আমাদের পক্ষে বিষয়টা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং’, জানান গাড্ডি।

শিশুটির মা ললিতাম্মা অবশ্য প্রাথমিক ভাবে তাঁর সন্তানকে ভিআইএমএস-এ নিয়ে যাওয়ার বিপক্ষে ছিলেন। তাঁর বক্তব্য ছিল, তাঁর শিশু ভগবানের উপহার। সে যেমন আছে তেমনই থাক। ‘তার পর আমার স্বামী এবং ডাক্তাররা আমাকে বোঝালেন, ভাল চিকিৎসার জন্য বাচ্চাটিকে ভিআইএমএস-এ নিয়ে যাওয়া জরুরি। এখন সে দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসুক, এটাই আমার আশা’, বলছেন ললিতাম্মা।






মন্তব্য চালু নেই