মেইন ম্যেনু

গাড়িতে বসে তারেকের শাশুড়ির জামিন

সম্পদের হিসাব গোপন রাখার অপরাধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের শাশুড়ি সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আদালতের এজলাসে উপস্থিত না হয়ে নিজ গাড়িতে বসেই তিনি জামিন পান।

রোববার দুপুরে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়ার মাধ্যমে তিনি জামিনের আবেদন করেন। সানাউল্লাহ মিয়া এ সময় আদালতকে জানান, তিনি (সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানু) অসুস্থ। এ কারণে তার পক্ষে আদালতে উপস্থিত হওয়া সম্ভব না। তিনি আদালত প্রাঙ্গণে নিজ গাড়িতে অবস্থান করছেন।

পরে দুদকের আইনজীবী মীর আবদুস সালাম আদালত প্রাঙ্গণে অবস্থান নেয়া সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুকে দেখতে যান। তিনি আদালতে এসে আসামির উপস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত করলে আদালত জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে, ১২ এপ্রিল ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা অভিযোগপত্র আমলে নিয়ে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, সম্পদের হিসাব জমা দেয়ার জন্য ২০১২ সালের ২৫ জানুয়ারি ইকবাল মান্দ বানুকে নোটিশ দেয় দুদক। এরপর হাইকোর্টে রিট আবেদন করে স্থগিতাদেশ পান ইকবাল মান্দ বানু।

ওই আদেশের বিরুদ্ধে দুদক আপিল করে। হাইকোর্টের ওই আদেশ স্থগিত হয়ে যায়। এরপর ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারি দুদকের উপ-পরিচালক আর কে মজুমদার ঢাকার রমনা থানায় ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে এ মামলা করেন।

সম্পদের বিবরণী জমা দেয়ার নোটিশ জারির পর নির্দিষ্ট সময়ে কমিশনে হিসাব না দেয়ায় এ মামলা করা হয়।

২০১৫ সালের ১৯ জানুয়ারি আদালতে মামলার অভিযোগপত্র জমা দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের উপ-পরিচালক আবদুস সাত্তার সরকার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম শামসুল আরেফিনের আদালতে এ অভিযোগপত্র জমা দেন।






মন্তব্য চালু নেই