মেইন ম্যেনু

গণমাধ্যমকে তারেকের বক্তব্য প্রচার না করার আহ্বান হানিফের

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বক্তব্য দেশের কোনো গণমাধ্যমে প্রচার না করতে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

রাজধানীর জিপিও ভবনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। বাংলাদেশ পোস্টম্যান ও ডাক কর্মচারী ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটি ওই সভার আয়োজন করে।

তারেক রহমানকে পাগল উল্লেখ করে তিনি এ সময় বলেন, রাস্তা দিয়ে যখন কোনো পাগল যায়, তখন যদি তার দিকে কোনো মানুষ তাকায় তবে তার পাগলামী আরও বেড়ে যায়। বর্তমানে যে পাগলের (তারেক) আবির্ভাব হয়েছে। আপনারা (সাংবাদিক) তার কোনো বক্তব্য প্রচার করবেন না। তার পাগলামী এমনিতেই থেমে যাবে।

বিএনপি অশুভ শক্তি এমন ইঙ্গিত করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘অশুভ শক্তি যদি দেশের উন্নয়নে বাধা সৃষ্টি করে তাহলে উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের পরিবারকে ‘খুনী পরিবার’ হিসেবেও এ সময় আখ্যায়িত করেন তিনি।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। কোনো অশুভ শক্তি যদি দেশের উন্নয়নে বাধার সৃষ্টি করে তাহলে তাদের উপযুক্ত জবাব দেওয়া হবে।

সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছে দাবি করে হানিফ বলেন, এ মামলার তদন্ত থেকে বিষয়টি বেরিয়ে এসেছে যে সরকারি পৃষ্ঠপোষকাতায় এ হামলা চালানো হয়েছে। রাষ্ট্রের ও প্রশাসনের সকল ষন্ত্র ব্যবহার করে সে দিন হামলা চালানো হয়েছিল। মিথ্যাচার করে ওই মামলার আলামত নষ্ট করা হয়েছিল।

বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, তারা মুক্তিযুদ্ধের মাস এলেই বিভ্রান্তি ছড়ায়। আগস্ট মাস এলেই তারা নানা অসংলগ্ন কথা বলা শুরু করে।বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন পাকিস্থানী এজেন্ট হিসেবে উল্লেখ করেন হানিফ বলেন, জিয়া পাকিস্থানের এজেন্ট হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ করেছেন। পাকিস্থানীদের ইঙ্গিতেই তিনি মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিলেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি নাছির আহমেদের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই