মেইন ম্যেনু

খুলে দেওয়া হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে প্রবেশের প্রধান ফটক খুলে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ ও আনসার সদস্যদের নিয়ে বিকাল ৪ টাকা ২৫ মিনিটে হাসপাতালের পরিচালক জরুরি বিভাগের প্রথম ফটকটি খুলে দেন।

এর আগে আজ মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে প্রবেশের প্রধান ফটক আটকে চিকিৎসাসেবা বন্ধ করে দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা। এতে চরম দুর্ভোগে পরে রোগীরা।

জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ২-এর সাততলায় চিকিৎসকদের জন্য নির্ধারিত লিফটে ওঠা নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত হয়। ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে লিফট থেকে নেমে যেতে বলেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে হাতাহাতি ও মারামারির ঘটনা ঘটে।

পরে বেলা সোয়া একটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কিছু শিক্ষার্থী লাঠিসোঁটা নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে জড়ো হন। সেখানে তাঁরা ভাঙচুর চালান। এ সময় পুলিশ ও আনসারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালান। পরে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে প্রবেশের প্রধান ফটক আটকে দেন ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা। এতে জরুরি বিভাগে চিকিৎসাসেবা বন্ধ হয়ে যায়।






মন্তব্য চালু নেই