মেইন ম্যেনু

খালেদাকে হানিফের অনুরোধ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১৫ আগস্ট মৃত্যু বার্ষিকীতে খালেদা জিয়ার জন্মদিন পালনকে অরুচিকর ও মানবতাবিরোধী অপরাধের মতো বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, ‘আমরা আগেও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ভুয়া জন্মদিন পালন না করার জন্য অনুরোধ করেছি। আশা করছি তিনি এবার এই কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখবেন।’

তিনি বলেন, ‘যদি খালেদা জিয়া এবারও ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিন পালন করেন তাহলে ধরে নেব তিনি ৭৫-এর বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দোসর এবং তাদের পক্ষ নিয়েছেন।’

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে মহানগর সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও দলের কার্যনির্বাহী সদস্যদের সঙ্গে এক যৌথসভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এক কথা বলেন।

হানিফ বলেন, ‘শুধু মোসলমানরাই নয়, গোটা বাঙালি জাতির জন্য ১৫ আগস্ট একটি শোকের দিন। এই দিনে সবাই আনন্দ উল্লাস করা থেকে বিরত থাকেন। শুধু খালেদা জিয়াই ভুয়া জন্মদিন পালন করেন। আশা করবো বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের মতো এই শোকের দিনের ভাবগাম্ভীর্য নষ্ট হয়, শুধু তিনিই নন, কোনো রাজনৈতিক দলই করবে না।’ ১৫ আগস্টের কর্মসূচি পালনে সব রাজনৈতিক দল সহায়তা করবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

সভা শেষে বরাবরের মতো এবারও আগস্ট মাসব্যাপী দলীয় কর্মসূচি ঘোষণা করেন হানিফ। এর মধ্যে ৩ আগস্ট কৃষকলীগের উদ্যোগে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে রক্তদান কর্মসূচি ও আলোচনা সভা; ৫ আগস্ট শেখ কামালের জন্মদিনে ধানমণ্ডির আবাহনী ক্রিড়া মাঠে তার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ; ৮ আগস্ট ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের জন্মদিনে সকালে বনানী কবর স্থানে শ্রদ্ধাঞ্জলী ও বিকেলে মিলাদ মাহফিল; ১৫ আগস্ট শোক দিবসের প্রথম প্রহরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৭টায় প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, সাড়ে ৭টায় বনানী করবস্থানে ফাতেহা পাঠ, সকাল ১০টায় টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিস্থলে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, বিকেল ৫টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আলোচনা সভা; ১৭ আগস্ট কালো দিবসে সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে ঢাকা মহানগরীর আলোচনা সভা; ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের অস্থায়ী শহীদ বেদীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি ও আলোচনা সভা, ৩১ আগস্ট ছাত্রলীগের আলোচনা সভার মাধ্যমে কর্মসূচি শেষ হবে।

সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, সাহারা খাতুন, নূহ-উল আলম লেলিন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ আজিজ, সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, উপদপ্তর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাসসহ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতারা।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই