মেইন ম্যেনু

খালেদাকে নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণার নীলনকশা চলছে

বিএনপির বর্তমান মুখপাত্র আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেছেন, ‘সরকার বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আগামী নির্বাচনে অযোগ্য ঘোষণা করার নীলনকশা তৈরি করছে। কিন্তু জনগণ সরকারের এই ষড়যন্ত্র মেনে নেবে না।’

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন।

আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, ‘বিএনপিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাইরে রাখার জন্য সরকার নীলনকশা তৈরি করছে। জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ আনছে। তবে এই নীলনকশা অনুযায়ী খালেদা জিয়াসহ বিএনপিকে নির্বাচনের জন্য অযোগ্য ঘোষণা করা হলে জনগণ তা মেনে নেবে না। এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে যদি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে রায় দেয়া হয় সেটাও অবিচার করা হবে।’

আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়া বাদ পড়বেন- শনিবার জাতীয় সংসদে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘আমার জানা মতে ইনু প্রকৌশলী ছিলেন, কিন্তু তিনি কবে জ্যোতিষ হলেন?’

একই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ইনু যে কথা বলেছেন তা মাতলামি ছাড়া অন্য কিছু নয়। আর আমি মনে করি, এই কথা সুস্থ লোকের কথা নয়, অসুস্থ লোকের কথা।’

লালবাগ কেল্লার দেয়াল ভেঙে গাড়ি পার্কিং করার জন্য স্থাপনা তৈরির ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘লালবাগ কেল্লার দেয়াল ভেঙে বিদেশি পর্যটকদের জন্য গাড়ি পার্কিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আমরা মনে করি, সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে লালবাগ কেল্লাকে ধ্বংস করতে চাচ্ছে।’

সুন্দরবনের রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন প্রসঙ্গে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য নষ্ট হবে বলে ফরাসিসহ অন্য দেশের ব্যাংকগুলো এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে চাচ্ছে না। আমরাও চাই, সুন্দরবনে নয় অন্য কোথাও স্থাপন করা হোক বিদ্যুৎকেন্দ্রটি। সেটা যদি গোপালগঞ্জেও স্থাপন করা হয় তাহলে আমাদের আপত্তি নেই।’

সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার হায়দার আলী, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, যুব-বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-দপ্তর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনিসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই