মেইন ম্যেনু

ক্রিকেটে সেরা ১১ ছবির তিনটিই বাংলাদেশের

প্রতি বছরই ক্রিকেটে সেরা ছবি বাছাই করে উইজডেন-এমসিসি। এবারো তার ব্যত্যয় ঘটেনি। ২০১৬ সালে ক্রিকেটাঙ্গনে ঝড় তোলে সেরার তালিকায় স্থান করে নিয়েছে ১১টি ছবি। এর মধ্যে তিনটিই বাংলাদেশের। আরটিভি অনলাইনের পাঠকদের জন্য তা তুলে ধরা হলো।

১. এ বছর ক্রিকেটাঙ্গনে আলোচিত হয় অসংখ্য ছবি। এর মধ্যে সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে কাশ্মীরের শ্রীনগরের মুঘল বাগানে ছেলেদের ক্রিকেট খেলার ছবিটি। এজন্য সেরা ফটোগ্রাফারেরও পুরস্কার পেয়েছেন স্থানীয় ফ্রিল্যান্স সাকিব মাজিদ।

২. ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অস্ট্রেলিয়া-ভারতের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ চলার সময় দু’দিকে জ্বলতে থাকা আগুনের শিখায় দু’হাত উষ্ণ করেন বিরাট কোহলি। এ বছর সেটিই দ্বিতীয় সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে। এজন্য রানার্স-আপ পুরস্কার জিতেছেন আসাঙ্কা ব্রেন্ডন রত্নায়াকে।

৩. তৃতীয় সেরা হয়েছে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ব্যাটিংয়ের ছবি।

৪. কলকাতায় ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জয়ের পর অনন্য ভঙ্গিতে উদযাপন করেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। সেই ছবিটি হয়েছে চতুর্থ।

৫. বিগ ব্যাশের ম্যাচে শত চেষ্টা করেও ময়েজেস হেনরিকসের ক্যাচটি ধরতে পারেননি সিডনি থান্ডার্সের প্যাট কামিন্স। ক্রিকেটের বাইবেল খ্যাত উইজডেন ও মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডের (এমসিসি) দৃষ্টিতে সেটি হয়েছে পঞ্চম সেরা।

৬. ২০১৬ ক্যারিবীয়ান প্রিমিয়ার লিগে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টসের লেন্ডল সিমন্স বলে স্ট্রোক খেলতে গিয়ে ব্যাট ছুঁড়ে মারেন আকাশে। সেই ছবিটি হয়েছে ষষ্ঠ।

৭. বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জে রোডে শিশুদের ক্রিকেট খেলার দৃশ্যটি হয়েছে সপ্তম।

৮. নিচ দিয়ে যাচ্ছে গাড়িঘোড়া। তাই নিরুপায় হয়ে ভারতে এক ছাদের ওপর ক্রিকেট খেলে শিশুরা। উইজডেন-এমসিসির দৃষ্টিতে তা হয়েছে অষ্টম সেরা।

৯. কার্ডিফে ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার পঞ্চম ম্যাচে ক্যাচ ধরার জন্য ডাইভ দেন জস বাটলার ও জো রুট। উইজডেন-এমসিসির সেরা ছবির তালিকায় এটি রয়েছে ১১তম স্থানে।

১০. বাংলাদেশে এক শীতের সকালে ধানের চাতালে ক্রিকেট খেলছে শিশুরা। সেই ছবি হয়েছে দশম।

১১. ভারতের পশ্চিম বাংলার প্রত্যন্ত গ্রামে ব্যাটের ওপর বল নিয়ন্ত্রণে রাখার প্রতিযোগিতায় বান্ধবীর সঙ্গে লিপ্ত হয় এক বালিকা। উইজডেন-এমসিসির সেরা ছবির তালিকায় এটি রয়েছে ১১তম স্থানে।






মন্তব্য চালু নেই