মেইন ম্যেনু

কুমিল্লা সিটি কলেজকেন্দ্রে বিস্ফোরণ, ভোট স্থগিত

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে সরকারি সিটি কলেজকেন্দ্রে বিস্ফোরণ ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। এর পর কেন্দ্রটির ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিস্ফোরণের এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সময় ২১ নম্বর ওয়ার্ডের ওই ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, সাড়ে ১১টার দিকে ভোট গ্রহণ চলাকালে কেন্দ্রের বাইরে হঠাৎ দুটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে। একই সঙ্গে কয়েকজন যুবক কেন্দ্রে ঢুকে পড়ে। ওই সময় এক কাউন্সিলর প্রার্থীর শামসুদ্দিন নামের এজেন্টকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সরকারি সিটি কলেজ কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার ফরহাদ উদ্দিন জানান, বিস্ফোরণের কারণে উদ্ভুত পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে এই কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

কুমিল্লা সিটিতে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ভোট চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। বিভিন্ন নির্বাচনী কেন্দ্রে থাকা এনটিভির প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন, এখন পর্যন্ত বড় কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি কোনো কেন্দ্রে।

তবে বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু অভিযোগ করে বলেছেন, দুটি কেন্দ্রে তাঁদের এজেন্টদের ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়েছে। তিনি পুলিশ নিয়ে তাঁদের কেন্দ্রে ঢুকিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই