মেইন ম্যেনু

কিশোরগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্ত

কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) প্রতিনিধি॥ নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার উত্তর দুরাকুটি ময়দান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সাবেক শিক্ষকনেতার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে প্রাথমিক শিক্ষা রংপুর বিভাগীয় উপ পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট একাধিক দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ইউপি সদস্যসহ অবিভাবকরা।

অভিযোগে জানা যায়,প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম সপ্তাহে কার্য দিবসের একদিনও বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকেন না। প্রতিদিন বিভিন্ন তদবির কাজে শিক্ষা অফিসে সময় ব্যয় করেন। ফলে ছাত্র ছাত্রীদের লেখা পড়ায় ব্যাঘাত ঘটছে। এছাড়া বিদ্যালয়ের কাজে ব্যবহৃত আলমিরা বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে নিজ কাজে ব্যবহার করছেন। বিদ্যালয়ের হাজিরা খাতায় প্রতিদিন প্রতিটি শ্রেণীতে ১০থেকে ১৫জন ছাত্র ছাত্রী উপস্থিত থাকলেও দ্বিগুন ছাত্র ছাত্রী উপস্থিত দেখিয়ে উপ-বৃত্তির টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেন। মজার বিষয় হল তিনি বিয়ে না করে দুটি সন্তানের নামে নিয়মিত শিক্ষা ভাতা উত্তোলন করে থাকেন। তাছাড়াও তিনি ভূয়া ছাত্র ছাত্রী ভর্তি করে বই উত্তোলন করে কালো বাজারে বিক্রি করেন। ম্যানেজিং কমিটির সভা না করে ভূয়া রেজুলেশন করে শিক্ষা অফিসে দাখিল করেন। প্রাক প্রাথমিকে উপকরণ ক্রয় না করে বরাদ্দকৃত টাকা আত্মসাৎ করে আসছেন। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগ ভিত্তিহীন ও বানোয়াট।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাসুদুল হাসানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই