মেইন ম্যেনু

কাশ্মীরে তুষারধসে ভারতীয় সেনাদের মৃত্যুর পেছনেও পাকিস্তানের হাত! কিভাবে সম্ভব?

ভারত অধিকৃত কাশ্মীরে তুষারধসের অন্যতম কারণ হল পাকিস্তানের লাগাতার গোলাবর্ষণ। এমনটাই দাবি করলেন ভারতীয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত।

রাওয়াত বলেন, জম্মু ও কাশ্মীরে ঘটে যাওয়া একের পর এক তুষারধসের কারণ বিশ্ব উষ্ণায়ন, পরিবেশগত বদল এবং পাকিস্তানের ক্রমাগত গোলাবর্ষণ।

তার দাবি, প্রতিবেশি রাষ্ট্রের সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন, ভারী অস্ত্র দিয়ে গোলাবর্ষণের ফলে জম্মু ও কাশ্মীরের মাটি আলগা হয়ে পড়েছে। যার জেরে ধস নামছে।

পাশাপাশি, বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলেও হিমবাহগুলিতে চিড় ধরা বড়ছে বলেও জানান তিনি। তার মতে, এখন সেই সব জায়গাতেও ধস নামছে, যেখানে অতীতে কোনওদিন ধস নামেনি।

সম্প্রতি, কাশ্মিরের সোনমার্গে গত ২৫ তারিখের তুষারধসে নিহত সেনা অফিসার মেজর অমিত সাগরের মৃত্যু হয়। এদিন নিহত অফিসারকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে এমনই মন্তব্য করেন সেনাধ্যক্ষ।

তিনি জানান, মাচিল, দাওয়ার সেক্টরে ধস নেমেছে। অনুপ্রবেশ রুখতে সেখানে বেশ কিছু নতুন পোস্ট গঠন করে সেনা। আর সেগুলিকে টার্গেট করে ক্রমাগত শেলিং করে চলেছে পাক বাহিনী।

রাওয়াতের দাবি, গোলাগুলির ফলে, মাটি আলগা হয়ে পড়ছে। তার ওপর রবফ জমা হতে তাতে ধস নামছে।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিনের একাধিক তুষারধসে জম্মু ও কাশ্মীরে ১৫ সেনাকর্মী সহ মারা গিয়েছেন ২১ জন। সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস






মন্তব্য চালু নেই