মেইন ম্যেনু

কলকাতা বইমেলায় রমরমা বিক্রি জাকির নায়েকের ইসলামিক বই

ঢাকার গুলশনে সন্ত্রাসবাদী হামলায় নাম জড়িয়েছিল ভারতীয় ধর্ম প্রচারক ডাঃ জাকির নায়েকের। এই তথ্যের ভিত্তিতে তার সংস্থা ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনকে আগামী পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ভারত সরকার। কিন্তু কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলায় সেই নিষিদ্ধ সংস্থা থেকে প্রকাশিত বই প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে বলে জানা গেছে। বইয়ের সঙ্গে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে জাকিরের বক্তব্যের ভিডিও সম্বলিত সিডি এবং ডিভিডিও বিক্রি করা হচ্ছে কলকাতা বইমেলার উল্লিখিত স্টলে।

চলতি মাসের ২৫ তারিখ থেকে ভারতের পশ্চিম বঙ্গের বাইপাসের ধারে মিলন মেলায় শুরু হয়েছে ‘কলকাতা বইমেলা’। ৪১ তম এই আন্তর্জাতিক বইমেলার ৪৬৩ নম্বর স্টলে বিক্রি হচ্ছে জাকির নায়েকের বক্তব্য সম্বলিত নানান বই। যে বইগুলি প্রকাশ করেছে পিস টিভি। এই পিস টিভি পরিচালনা করতো জাকিরের সংস্থা ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন।

ঢাকার গুলশন হামলার পর থেকে ভারত এবং বাংলাদেশে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে পিস টিভির সম্প্রচার। অভিযোগ ছিল ঢাকার গুলশনের হামলাকারীরা ডাঃ জাকির নায়েকের বক্তব্য শুনে প্রভাবিত হয়ে সন্ত্রাসে লিপ্ত হয়েছিল। পিস টিভির মাধ্যমে সম্প্রচার করা হতো জাকিরের নানাবিধ বক্তব্য। হিন্দি বাংলা সহ আরও বেশ কয়েকটি ভাষায় সম্প্রচারিত হতো পিস টিভির এইসব অনুষ্ঠান।

এই পিস টিভিতেই সম্প্রচারিত হয়েছিল লস্কর প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে সমর্থন জানিয়ে জাকিরের মতামত। যেখানে জাকির নায়েক বলেছিলেন, ‘সকল মুসলিমকে সন্ত্রাসবাদী হওয়া উচিত। সর্বত্র ইসলামের বিস্তার ঘটানোর জন্য প্রয়োজনে হিংসাকে হাতিয়ার করুক মুসলিমেরা। ধর্মগুরুর উপদেশ মেনে আত্মঘাতী হামলা করা খারাপ কাজ নয়। ’ জাকির নায়েকের নানা এই ধরণের বক্তব্য সম্প্রচারিত হয়েছিল পিস টিভিতে।

সেই পিস টিভির পিস পাবলিকেশন কর্তৃক প্রকাশিত জাকির নায়েকের নানাবিধ বই অবাধে বিক্রি হচ্ছে কলকাতা বইমেলার ৪৬৩ নম্বর স্টলে। কিন্তু নিষিদ্ধ সংস্থার বই কেন প্রকাশ্যে বিক্রি করা হচ্ছে এমন এক প্রশ্নের জবাবে ওই স্টলে কর্তব্যরত এক কর্মী বলেন, “সংস্থা নিষিদ্ধ হলেও বই বিক্রিতে কোনও সমস্যা নেই। ”






মন্তব্য চালু নেই