মেইন ম্যেনু

কর্ণের বেডরুমে শাহরুখ-পত্নী গৌরীর ছবি

কথায় বলে, এক জন সফল পুরুষের নেপথ্যে থাকেন এক জন মহিলা। কিন্তু কখনও কখনও এক জন মহিলা একাধিক পুরুষের জীবনে অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করেন। যেমন, স্বামী শাহরুখ খানের সাফল্যে অনেক অবদান রয়েছে স্ত্রী গৌরীর। কিন্তু পাশাপাশি বলিউডের নামজাদা পরিচালক কর্ণ জোহরের জীবনেও গৌরী পালন করেন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। কিছু কাল আগে তেমনটা জানিয়েছেন কর্ণ নিজেই।

এক নামজাদা সংবাদপত্রকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে গৌরীর সঙ্গে নিজের সম্পর্ক বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন কর্ণ। গৌরী সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমাদের সব সময়ে সরাসরি কথা বলারও দরকার পড়ে না। আমরা দু’জনেই জানি যে, আমরা সর্বদা একে অন্যের পাশে রয়েছি।’

শাহরুখের সঙ্গে না হয় কর্ণের পরিচালক-অভিনেতার সম্পর্ক। কিন্তু গৌরী তো তাঁর অভিনেত্রী নন। তা হলে শাহরুখকে টপকে সরাসরি গৌরীর সঙ্গে কেমন সম্পর্ক কর্ণের? কর্ণ বলছেন, ‘শাহরুখ আমার বন্ধু নয়। ও বরং আমার অভিভাবকের মতো। ও ঘরে ঢুকলেই আমি উঠে দাঁড়াই, আর ও যতক্ষণ না বসছে, দাঁড়িয়েই থাকি। কিন্তু গৌরীর সঙ্গে আমার অন্য সম্পর্ক।’ শাহরুখ-পত্নীর প্রতি নিজের মুগ্ধতা ব্যক্ত করে কর্ণ বলেন,‘গৌরী দৃঢ়চেতা এবং বলিষ্ঠ এক জন মহিলা। ও এক জন অসাধারণ পত্নী। মা এবং কন্যা রূপেও ও অনবদ্য। ও সব সময়ে আমার জীবনে নীরব অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করে।’

গৌরীর সঙ্গে নিজের সম্পর্কের গভীরতা বোঝাতে গিয়ে কর্ণ বলেছেন, ‘গৌরীকে আমি ভোর চারটেতেও নির্দ্বিধায় ফোন করতে পারি। আমি জানি, আমার সমস্ত কথা ও ধৈর্য ধরে শুনবে। ও আমার বন্ধু, আমার লাইফলাইন। কেউ আমাদের সম্পর্কটাকে বদলাতে পারবে না।’

কর্ণের মুখে এ হেন কথাবার্তা শুনে এ নিয়ে অন্য ধরনের গুঞ্জন শুরু হবে, এটা কর্ণ নিজেও আঁচ করেছিলেন। তাই এই সমস্ত কথা বলার পাশাপাশি জানিয়ে দিয়েছেন, ‘গৌরী আমার বোনের মতো। ও যে ভাবে শাহরুখের জীবনটা সামলানোর পাশাপাশি এক জন স্বনির্ভর মহিলা হিসেবে নিজের পরিচিতি গড়ে তুলেছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়।’

গৌরীকে নিয়ে এই সমস্ত কথা বলার পরে কর্ণ তাঁর সঙ্গে জুড়ে দেন শাহরুখেরও নাম। বলেন, ‘আসলে শাহরুখ আর গৌরী— দু’জনেই আমার কাছে অনুপ্রেরণার উৎস। আমি আমার বেডরুমে শাহরুখ-গৌরীর একটা ছবি টাঙিয়ে রেখেছি। যখনই মানসিক ভাবে ভেঙে পড়ি, তখনই ওদের ছবিটার দিকে তাকালে আমি মানসিক জোর পেয়ে যাই।’ -এবেলা






মন্তব্য চালু নেই