মেইন ম্যেনু

ওসির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

বরগুনার তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছে তার বাসার গৃহপরিচারিকা।
সোমবার সকালে গৃহপরিচারিকা বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলা করতে যান। কিন্তু ওই বিচারক না থাকায় শুধু আর্জি গ্রহণ করা হয়।
গৃহপরিচারিকার নাম মর্জিনা (১৬)। সে তালতলী উপজেলার বড়বগী ইউনিয়নের মজিবর রহমানের মেয়ে।
আর্জিতে বিচারপ্রার্থী উল্লেখ করেন, ওসির বাসায় কাজ করার সময় মর্জিনাকে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন ওসি মিজানুর। সর্বশেষ গত ৬ আগস্ট কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন ওসি। এ সময় গৃহপরিচারিকার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এলে রক্ষা পায় মর্জিনা।
আর্জিতে মর্জিনা যুক্তি দেখায়, ওসির ভয়ে প্রথম দিকে আদালতে মামলা করতে আসেনি সে।
জানতে চাইলে অভিযুক্ত ওসি মিজানুর রহমান বলেন, ‘কিছুদিন আগে আমার বাসা থেকে সাড়ে ১১ ভরি স্বর্ণ চুরি করে মর্জিনার বাবা। এ ব্যাপারে থানায় মামলাও হয়েছে। মামলা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্যই মেয়েকে দিয়ে মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে মামলা করেছে।’






মন্তব্য চালু নেই