মেইন ম্যেনু

এটাই পৃথিবীর সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর আইসক্রিম?

ডিসেম্বরের পার্টি টাইম শুরু হয়ে গিয়েছে। আর পার্টিতে কি আর আইসক্রিম না হলে চলে? ভালমন্দ খাওয়ার পর ডেজার্ট না হলে কি মন ভরে? আর ডেজার্টের রাজা তো বরাবরই আইসক্রিম। আবার আইসক্রিম মানেই হয় ঠান্ডা লেগে যাওয়া, নয়তো মোটা হয়ে যাওয়ার চিন্তা। তবে নিজের বাড়িতে পার্টি হলে বানিয়ে ফেলতেই পারেন সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর এই আইসক্রিম। লাগবে শুধু হলুদ, আদা আর নারকেল।

আইসক্রিমে হলুদ, নারকেল, আদা? পড়েই অদ্ভুত লাগছে, তাই না? ভাবছেন একি চিংড়ি মাছের মালাইকারি নাকি! হলুদে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট

রোগ প্রতিরোধ বাড়াতে সাহায্য করে। এর মধ্যে থাকা কারকিউমিন শরীরের জন্য দারুণ উপকারী হওয়ায় প্রতি দিনের ডায়েটে হলুদ রাখার পরামর্শ দেন চিকিত্সকরা। জ্বর, সর্দি-কাশির সমস্যায় তো হলুদ দেওয়া দুধ, আদা খাওয়ার রেওয়াজ বহু পুরনো। তাহলে আইসক্রিমেই বা বাদ দেবেন কেন?

অন্য দিকে নারকেলের মধ্যে থাকে ইলেকট্রোলাইট ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। যা রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে হার্ট সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। হলুদের মতো নারকেল তেলেরও রয়েছে অ্যান্টিভাইরাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ।

কী কী লাগবে

১ কাপ নারকেলের দুধ

আধ কাপ কোকোনাট ক্রিম

১ কাপ কাজু

১/৪ কাপ মধু

২ চা চামচ গুঁড়ো হলুদ

১ চা চামচ দারচিনি গুঁড়ো

১ টেবল চামচ আদা বাটা

১/৪ চা চামচ এলাচ

কী ভাবে বানাবেন

কাজু অন্তত ২ ঘণ্টা জলে ভিজিয়ে রাখুন। একটি ফ্রিজিং প্যানে পার্চমেন্ট পেপার দিয়ে লেয়ার করে ফ্রিজারে রাখুন। কাজু জল থেকে তুলে বাকি সব উপকরণের সঙ্গে ব্লেন্ডারে মিশিয় নিন। এই মিশ্রণ ফ্রোজেন প্যানে ঢেলে সারা রাত ফ্রিজারে রাখুন।-আনন্দবাজার






মন্তব্য চালু নেই