মেইন ম্যেনু

এক অবাক দৌড়বিদের কথা

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন, প্রতি সকালে দৌড়োন, ব্যাপারটা স্বাস্থ্যরক্ষা সংশ্লিষ্ট। কিন্তু আজ এমন একজনের কথা জানা যাক, যার দৌড়ের মধ্যে এ ধরনের উদ্দেশ্য নেই। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সানফ্রান্সিসকোর পথে পথে দেখা যায় তাকে। নাম রনি গুডম্যান।

রনি একজন গৃহহীন মানুষ। গৃহহীন মানুষের প্রতি গৃহবাসী মানুষের এক ধরনের উন্নাসিকতা হত আছে, তেমন কাউকে হয়ত করুণার চোখেও দেখেন তারা। রনি গুডম্যান সেই করুণাদৃষ্টি থেকে বাঁচতে বেছে নিয়েছেন এ কর্মকাণ্ড।

তিনি বলেন, ‘মানুষ যখন আমাকে দৌড়ুতে দেখে, তাদের মনে আমার দৌড়বিদ মূর্তিটাই স্থায়ী হয়ে থাকে। তারা তখন ভাবতে পারে না, আমি একজন গৃহহীন মানুষ। এই দৌড় আমাকে মনোবেল বাড়িয়ে দেয়, আমাকে শান্তি দেয়।’

জীবনের এক পর্যায়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন এই প্রৌঢ় তরুণ। দৌড় সেই আসক্তির বিরুদ্ধেও সংগ্রামে শক্তি যোগায় বলে অকপটে উল্লেখ করেন তিনি।

রনি গুডম্যান প্রতিদিন নিরবচ্ছিন্নভাবে দু’ ঘণ্টা দৌড়োন। এর মধ্য দিয়ে তিনি বাৎসরিক সানফ্রান্সিসকো ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগীতার জন্যে নিজেকে তৈরি করছেন বলেও জানান। তার স্বপ্ন, সেখানে বিজয়ী হয়ে তিনি যে অর্থ জয় করবেন, তা দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের গৃহহীন মানুষের জন্যে তৈরি হবে আতিথ্য ঘর- দ্য হসপিটালিটি হাউজ। গৃহহীন মানুষেরা সেখানে নিঃশর্ত নিশিযাপন করবে। হয়ত ফিরে পাবে হারানো আত্মসম্মানেরও কিছুটা। তেমনই স্বপ্ন দেখেন রনি গুডম্যান।






মন্তব্য চালু নেই