মেইন ম্যেনু

একরাম হত্যা : এমপি নিজাম হাজারীর ফাঁসি দাবি

ফেনীর ফুলগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি একরামুল হক একরাম হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে পৃথক সমাবেশ করেছে ফুলগাজীর ৬ ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার বিকেলে পৃথক পৃথক সমাবেশ থেকে নেতাকর্মীরা আবারো একরাম হত্যা জড়িত থাকার অভিযোগ তুলেছেন নিজাম হাজারীর বিরুদ্ধে।

এসময় নেতাকর্মীরা ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারীর ফাঁসি দাবি করেন।

যেসব ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা এ দাবি তুলেছে সেগুলো হচ্ছে- ফুলগাজী সদর, মুন্সিরহাট, আমজাদ হাট, দরবারপুর, আনন্দপুর ও জিএম হাট। বক্তব্য দেন- আওয়ামী নেতা হাজী জামাল উদ্দিন, কবির আহমদ কোম্পানী, আবদুল আলিম, জাকির হোসেন, হারুন মজুমদার, আবুল হোসেন, নাজিম উদ্দিন মজুমদার, ভিপি নূরুল আমিন, আমিন উদ্দিন, আশিকুর রহমান, সোহেল প্রমুখ।

জিহাদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা: একরাম হত্যাকাণ্ডের ঘটনার মূল হোতা জিহাদ চৌধুরীর নামে অস্ত্র আইনে নতুন মামলা হয়েছে। রিমান্ডে থাকা জাহিদ চৌধুরীর জিজ্ঞাসাবাদে দেয়া তথ্য অনুসারে সোমবার গভীর রাতে তার নিজ কার্যালয় থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি পিস্তল ও চারটি গুলি উদ্ধার করা হয়। এর আগে সোমবার তাকে আটদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়।

আবারো ২ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর: একরাম হত্যাকাণ্ডে জড়িত আবারো ২ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। দুপুরে ফেনীর চিফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. খাইরুল আমীন তাদের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। পুলিশ ২ আসামির ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছিল। তারা হচ্ছে মীর হোসেন স্বপন ও জাহিদুল ইসলাম। তাদের সোমবার ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি-তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ রিমান্ড মঞ্জুরের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

আবিদকে সারাদিন জিজ্ঞাসাবাদ: একরামকে প্রথম গুলি ছোড়া আবিদুল ইসলাম আবিদ মঙ্গলবার দুপুরে ফেনীর চিফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. খাইরুল আমীনের আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। বিচারকের খাস কামরায় জবানবন্দী দেয়ায় কোনো তথ্য উদঘাটন করা যায়নি।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি- তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ কিছুই বলতে রাজি হননি।

আবিদ নিজাম হাজারীর মামাতো ভাই ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বড় মণির ছেলে। তিনি এক সময় ছাত্রদলের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন।

ফুলগাজীতে একরাম মঞ্চ: একরাম হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের দাবিতে তার সমর্থকরা উপজেলার মুন্সির হাট বাজারে একরামমঞ্চ গঠন করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়নি। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম এর সত্যতা স্বীকার করেছেন।

জেলা আ.লীগের যুগ্ম সম্পাদক লাঞ্ছিত: একরাম হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের দাবিতে একরাম সমর্থকরা ফুলগাজীতে মানববন্ধন করেছে। এতে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন মজুমদার বক্তব্য দিতে গেলে একরাম সমর্থকরা তাকে লাঞ্ছিত করে। জনরোষে পড়ে বক্তব্য না দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যান তিনি।

আদেলের বাড়িতে তল্লাশি: মঙ্গলবার জাহাঙ্গীর কবির আদেলের বারাহীপুর ও শহরের পেট্রোলবাংলা বাড়িতে আবারো দুই দফা পুলিশ তল্লাশি চালিয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে পুলিশ সুপার পরিতোষ ঘোষ জানান, পুলিশ আদেলের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছেন। জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির আদেলের নির্দেশে জিহাদ চৌধুরী একরাম হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ আছে। আদেল ফেনী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি।






মন্তব্য চালু নেই