মেইন ম্যেনু

‘ঈদেই আসবে ‘রংবাজ’, পারলে ঠেকান’

বাংলা চলচ্চিত্র পরিচালকদের ‘বেকার’ বলায় অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম সফল ও তুমুল জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খান। শনিবার বিকালে একটি প্রজ্ঞাপনজারির মাধ্যমে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। আর পূর্ব নিষেদাজ্ঞা থাকা সত্বেও সমিতির আদেশ না মেনে শাকিবকে নিয়ে সিনেমা করার দায়ে বহিষ্কার হলেন ‘বসগিরি’ খ্যাত তরুণ নির্মাতা শামিম আহমেদ রনি।

কিন্তু চলচ্চিত্র সমিতির এমন সিদ্ধান্ত সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকনের মনগড়ায় হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন নির্মাতা শামিম আহমেদ রনি। তারমতে ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকেই খোকন ইচ্ছে করেই দলবল পাকিয়ে শাকিব খান ও তাকে নিষিদ্ধ করেছে। তবে এমন সিদ্ধান্ত মাথা পেতে রাজি নন শাকিব খান কিংবা রনি। শাকিবতো এমন সিদ্ধান্ত পাওয়ার পর বলেছেনই যে, শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত এমন অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে লড়বেন।

শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ ও নির্মাতা শামিম আহমেদ রনিকে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সদস্য পদ থেকে বহিষ্কারের ঘটনায় চলচ্চিত্রমোদিদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। অনেকেই একে ঘোর ষড়যন্ত্র বলে মনে করছেন। আর পরিচালক সমিতি কারো উদ্দেশ্য হাসিল করতে ঢাল হিসেবে কাজ করছে। তবে নির্মাতা শামিম মনে করছেন, এমন রূঢ় সিদ্ধান্ত শুধু ব্যক্তিগত আক্রোশের বলেই নেয়া হয়েছে।

শাকিব ও তিনি নিষিদ্ধ হওয়ার পর নির্মাতা রনি সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকনকে ইঙ্গিত করে বলেন, সুপারস্টার শাকিব খান এবং আমি নিষিদ্ধ(হাহাহা…)। ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে আর কতো কি করবেন তিনি? নাকি নতুনদের তিনি আসতেই দিবেন না? উনি পরপর দু’দিন আমার চিঠি একস্পেট করেননি, ক্ষমতার অপব্যবহার করে।

বদিউল আলম খোকনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে নির্মাতা রনি আরো বলেন, আমি ছবি বানাবো, শাকিব খান ছবিতে অভিনয় করবে। ‘রংবাজ’ ঈদে আসবেই ইনশাআল্লাহ। পারলে ঠেকাক তিনি।

উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকেলে এফডিসিতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট বেশ কয়েকটি সংগঠনের যৌথ এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই চলচ্চিত্রের সকল সমিতির নেতাদের উপস্থিতিতে শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বাংলা চলচ্চিত্র থেকে নিষিদ্ধ করা হয়। আর এ সভাতেই শাকিবকে নিষিদ্ধ করা ছাড়াও শামিম আহমেদ রনিকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয় সমিতি। চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ছাড়াও এসময় শাকিবকে নিষিদ্ধ করতে একমত পোষণ করে চলচ্চিত্র গ্রাহক সংস্থা, ফিল্ম এডিটরস গিল্ড, চলচ্চিত্র ফাইট ডিরেক্টরস এসোসিয়েশন, চলচ্চিত্র নৃত্য পরিচালক সমিতি, চলচ্চিত্র স্থিরচিত্রগ্রাহক সমিতি, চলচ্চিত্র উৎপাদন ব্যবস্থাপক সমিতি, চলচ্চিত্র উৎপাদন সহকারী ব্যবস্থাপক সমিতি, চলচ্চিত্র অঙ্গসজ্জা সমিতি, চলচ্চিত্র রূপসজ্জাকর সমিতি, চলচ্চিত্র লেখক সমিতি।






মন্তব্য চালু নেই