মেইন ম্যেনু

‘ইসলাম গ্রহণ করলে খুনের মামলা থেকে মুক্তি মিলবে’

ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলে খুনের মামলা থেকে মুক্তি মিলবে৷ খুনের দায়ে অভিযুক্ত ৪২ জন খ্রিস্টান ধর্মালম্বীকে এমন পরামর্শই দিলেন পাকিস্তানের সরকারি কৌঁসুলি৷ পাক সংবাদপত্র দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনে প্রকাশিত হয়েছে এই খবর৷

পাকিস্তানে সংখ্যালঘু খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের ৪২ জন অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ২০১৫ সালে চার্চে জোড়া বিস্ফোরণের অভিযোগ রয়েছে৷ লাহোরে ওই বিস্ফোরণে ২ জনের মৃত্যু হয়৷ অভিযুক্ত ৪২ জনের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আদালতে মামলা রুজু হয়৷ ওই মামলা চলাকালীনই অভিযুক্তদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন অভিযুক্তদের পক্ষের আন্দোলনকর্মী জোসেফ ফ্রান্সি৷

তার অভিযোগ, সরকারি কৌঁসুলি সাঈদ আনিস শাহ অভিযুক্তদের ধর্ম পরিবর্তনের বিনিময়ে সাজা মকুবের মতো বিস্ফোরক প্রস্তাব দিয়েছেন৷ ফ্রান্সির অভিযোগ, “সরকারি আইনজীবী অভিযুক্তদের গ্যারান্টি দিয়েছেন, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলে তাদের সাজা মকুব হয়ে যাবে৷”

দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে ফ্রান্সি জানিয়েছেন, অভিযুক্তরা এই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে বলেছে, প্রয়োজনে ফাঁসির সাজা মেনে নিতেও তারা রাজি৷ ডেপুটি ডিস্ট্রিক্ট পাবলিক প্রসিকিউটরের বক্তব্যকে সমর্থন জানাচ্ছেন না অভিযুক্ত পক্ষের আইনজীবী নসিব আঞ্জুম৷ দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন অভিযুক্ত কৌঁসুলির সঙ্গে যোগাযোগ করলে, প্রথমে তিনি এই অভিযোগ অস্বীকার করেন৷ পরে, তার বক্তব্যের গোপন ভিডিওটি দেখালে তিনি সাফাই দেন, “আমি নেহাত প্রস্তাব দিচ্ছিলাম৷”






মন্তব্য চালু নেই