মেইন ম্যেনু

আ.লীগ নেতা হত্যায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে আওয়ামী লীগ নেতা তাহের উদ্দিন হত্যা মামলায় পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার বিকেলে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক মো. আব্দুর রহমান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- হোসেনপুর উপজেলার জিনারী গ্রামের আবদুল কদ্দুস, তার ছেলে আসাদ মিয়া, একই এলাকার হামিজ উদ্দিনের ছেলে হাসিম উদ্দিন, মইজ উদ্দিনের ছেলে আ. রশিদ ও আবদুল হেকিমের ছেলে রুহুল আমিন।

এদের মধ্যে বিচার চলাকালে মৃত্যুবরণ করায় রুহুল আমিনকে দণ্ড থেকে অব্যাহতি দেন আদালত। এ ছাড়া দণ্ডপ্রাপ্ত চারজনের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এ মামলার ২৩ আসামির মধ্যে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ১৮ জনকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। তাদের মধ্যে তিনজন মারা গেছেন এবং ছয়জন পলাতক। বাকিরা রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে গত ২০০০ সালের ১২ নভেম্বর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্থানীয় হাজীপুর বাজারের কাছে প্রতিপক্ষের লোকজন হোসেনপুরের জিনারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জিনারী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তাহের উদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মো. সালাউদ্দিন বাদী হয়ে ঘটনার পরদিন ১৭ জনকে আসামি করে হোসেনপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে ২০০১ সালের ৬ আগস্ট এজাহারভুক্ত ১৭ জনসহ ২৩ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে দীর্ঘ ১৭ বছর পর এ মামলার রায় ঘোষণা করা হলো।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক এবং আসামি পক্ষে ছিলেন অশোক সরকার, এম এ রশিদ ও আবু বকর।






মন্তব্য চালু নেই