মেইন ম্যেনু

নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব

আ.লীগসহ ১২টি দলকে ইসির সর্তকবাণী

যথাসময়ে দশম সংসদ নির্বাচনের ব্যয়ের হিসাব জমা না দেয়ায় আওয়ামী লীগসহ ১২টি রাজনৈতিক দলকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।
রোববার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব ফরহাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
এ দিন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উপ-সচিব মিহির সারওয়ার মোর্শেদ দলের সাধারণ সম্পাদক ও মহাসচিবকে বরাবর এ চিঠি পাঠান।
গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ৪৪ সিসিসি-বিধি অনুযায়ী, ভোটের ফলফলা গেজেটে আকারে প্রকাশের পর ৯০ দিনের মধ্যে দলভিত্তিক নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দেয়ার বিধান রয়েছে।
দশম সংসদ নির্বাচনের বিজয়ীদের সরকারি ঘোষণা করে ৮ জানুয়রি গেজেটে প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন।
তবে কুড়িগ্রাম-৪ আসনের দুটি কেন্দ্রের পুনঃভোটসহ সর্বশেষ সংসদীয় আসনের গেজেট করা হয় ২৩ জানুয়ারি। সে মোতাবেক ২৩ এপ্রিলের মধ্যে সব দলকে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে বলে চিঠিতে জানানো হয়।
এ ব্যাপারে মিহির সারওয়ার মোর্শেদ বলেন, ‘এ চিঠি দিয়ে দলগুলোকে সর্তক করা হলো। এখনো তাদের হিসাব দেওয়ার সময় রয়েছে। এতে তারা ব্যর্থ হলে দশ হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে পরবর্তী ১৫ দিন সময় নিতে পারবে। তবে এরপরও হিসাব দাখিল না করলে তাদের নিবন্ধন বাতিল করার বিধান রয়েছে।’
দশম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, ওয়ার্কার্স পার্টি, জাসদ, তরীকত ফেডারেশন, বিএনএফ, জাতীয় পার্টি (জেপি), গণতন্ত্রী পার্টি, ন্যাপ , গণফ্রন্ট, খেলাফত মজলিস, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট অংশ নেয়।
আইন অনুযায়ী যে দল থেকে সর্বোচ্চ ৫০ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছে সে দল সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১০০ প্রার্থীর জন্য দেড় কোটি টাকা এবং সর্বোচ্চ ২০০ প্রার্থীর জন্য তিন কোটি টাকা ও সর্বোচ্চ ৩০০ আসনের প্রার্থীর জন্য সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয় করার সুযোগ ছিল।






মন্তব্য চালু নেই