মেইন ম্যেনু

আশ্বস্ত করছি নির্বাচন সুষ্ঠু হবে : ইসি সচিব

ষষ্ঠ ধাপের উপজেলা নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হবে বলে আশ্বস্ত করলেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের (ইসি) ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম।

বোরবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনে তার নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনাকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এ ধাপে উপজেলা পরিমাণ কম। এ কারণে প্রতি উপজেলায় আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর বেশি সংখ্যক সদস্য নিয়োজিত করেছি। এর আগের নির্বাচনগুলোতে প্রতিকেন্দ্রে ৩ থেকে ৪ জন পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হতো। কিন্তু এবার যে কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ না, সেখানেও ৯ জন পুলিশের সদস্য থাকবে।’

সচিব বলেন, ‘ষষ্ঠ ধাপের নির্বাচনে পুলিশের ৭ হাজার সদস্য নিয়োজিত থাকবে। সর্বমোট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ২০ হাজার মোতায়েন করা হয়েছে। এ কারণে আমরা আশ্বস্ত করছি, এ ধাপের নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হবে এবং ভোটাররা তাদের ইচ্ছে মতো ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।’

নির্বাচনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে এবং নির্বাচনী সরঞ্জামাদি সংশ্লিষ্ট এলাকায় পৌঁছে গেছে বলে জানান তিনি।

দেশবাসীর উদ্দেশে সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘মিডিয়ার মাধ্যমে আমি দেশবাসীকে বলতে চাই। তারা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিতে পারবেন। নির্বাচন কমিশন থেকে পরিস্থিতি সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হবে। আজ থেকে পর্যবেক্ষণ শুরু হয়েছে।’

ষষ্ঠ ধাপে ১২টি উপজেলায় (একটিতে চেয়াম্যান পদে উপনিবাচন) ১৮২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৬৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬৯ এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪৯ জন প্রার্থী রয়েছে।

গত ১৬ এপ্রিল ১৪টি উপজেলার তফসিল ঘোষণা করে প্রধান নির্বাচন কমিশন কাজী রকিবউদ্দিন আহমদ। সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী ও নারায়ণগঞ্জ বন্দর উপজেলা নির্বাচন স্থগিত করা হয়। সোমবার সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টার পর্যন্ত।






মন্তব্য চালু নেই