মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় নারী গার্মেন্টকর্মীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ; স্বামী পলাতক

টিপু সুলতান (রবিন), সাভার প্রতিনিধি : সাভারের আশুলিয়ায় মোসা. ইয়াসমিন নামে গার্মেন্টকর্মী গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী পলাতক। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

শনিবার বিকেল ৫টার দিকে জামগড়ার গফুর মণ্ডল স্কুল সংলগ্ন চাঁন মিয়ার ভাড়া বাসা থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের খালাতো ভাই মাহবুব আলম অভিযোগ করে বলেন, দাম্পত্য কলহের জেরেই ইয়াসমিনকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর পালিয়েছে তার স্বামী জুয়েল প্রামানিক। কারণ নিহতের গলায় নখ ও আঙ্গুলের কালো দাগ রয়েছে বলেও জানায় সে।

পলাতক জুয়েল প্রামানিক বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দি থানার চাঁদবাড়ী গ্রামের শইমউদ্দিন প্রামানিকের ছেলে এবং নিহত মোসা. ইয়াসমিন পঞ্চগড় জেলার দেবিগঞ্জ থানার টুকরাপাসা এলাকার হামিদুল ইসলামের মেয়ে। সে স্টারলিং ক্রিয়েশন কারখানায় অপারেটর পদে কাজ করতো।

বাড়ির পাশের কক্ষের ভাড়াটিয়া আছমা বেগম ও বাড়ির মালিক রেখা আক্তার জানান, গত এক মাস আগে তাদের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নেয় ঐ দম্পতি। এরপর মাঝে মধ্যেই কলহের জেরে জুয়েল তার স্ত্রী ইয়াসমিনকে মারধর করত। এঘটনার পর গতকাল রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া বাধেঁ। পরে আজ দুপুর পর্যন্ত তাদের দেখতে না পেয়ে কক্ষের ভিতর ঢুকে ইয়াসমিনের নিথর দেহ বিছানায় পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে নিহতের মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করে।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক অভিজিৎ চৌধুরী বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পেলেই হত্যার ব্যাপারে জানা যাবে বলেও জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই