মেইন ম্যেনু

আরো ১১ পণ্যে পাটের বস্তা বাধ্যতামূলক

ধান, চাল, গম, ভুট্টাসহ ছয়টি পণ্যে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক আইন, ২০১০ বাস্তবায়নে ২০১৫ সালের শেষ দিক থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয় বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। এবার আরো ১১টি পণ্যে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, গত ২১ জানুয়ারি এ-সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন, ২০১০ (২০১০ সনের ৫৩ নম্বর আইন) এর ২২ এ প্রদত্ত ক্ষমতাবলে, সরকার পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার বিধিমালা, ২০১৩ এর সংশোধন করেছে। নতুন করে আরো ১১টি পণ্যে পাটজাত মোড়কের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে এ সংশোধনীর মাধ্যমে।

পণ্যগুলো হলো- মরিচ, হলুদ, পেঁয়াজ, আদা, রসুন, ডাল, ধনিয়া, আলু, আটা, ময়দা, তুষ-খুদ-কুঁড়া। এর ফলে মোট ১৭টি পণ্য সংরক্ষণ, সরবরাহ ও মোড়কীকরণে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হলো।

২০১৩ সালের ৩ জুন প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার, চিনি সংরক্ষণ, সরবরাহ ও মোড়কীকরণে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়। এবার এই সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭তে।

পণ্যে পাটের বস্তা ব্যবহার বাধ্যতামূলক করার ফলে ভোক্তা পর্যায়ে ব্যয় কিছুটা বাড়লেও, সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন বাজার বিশ্লেষকেরা।

অভ্যন্তরীণভাবে ও আন্তর্জাতিক বাজারে পাটের চাহিদা বেড়ে গেলে দামও বাড়ে। তাই কৃষক পর্যায়েও ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতের পরামর্শ সংশ্লিষ্টদের।






মন্তব্য চালু নেই