মেইন ম্যেনু

আমি হিন্দু ও মুসলিম দুটোই : সালমান

কৃষ্ণসার হত্যা মামলায় শুক্রবার আদালতে হাজির হয়েছিলেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। যোধপুর আদালতে সালমানে সঙ্গে হাজিরা দেন সোনালি বেন্দ্রে, নীলম এবং সাইফ আলি খান।

আদালতে সালমান খানকে ৬৫টি প্রশ্ন করেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দলপত সিং রাজপুরোহিত।

এর মধ্যে একটি ছিল সালমান খানের ধর্ম কী? উত্তরে সালমান বলেন, ‘আমি হিন্দু এবং মুসলিম দুটোই। আমি ভারতীয়।’

এদিন যোধপুর আদালতে সালমান নিজেকে নিদোর্ষ দাবি করেন। তাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে বলেও দাবি সালমানের।

চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সালমানকে প্রশ্ন করেন, দুজন আপনাকে দেখেছেন কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করতে। উত্তরে সালমান বলেন, এটা ভুল অভিযোগ।

বিচারকের পরের প্রশ্ন,লাইসেন্সহীন অস্ত্র ব্যবহার করেছেন আপনি? এবারও সালমানের উত্তর, ভুল অভিযোগ। পরবর্তী প্রশ্ন, যে গাড়ি আপনি শিকার করতে নিয়ে গিয়েছিলেন তাতে পাওয়া গেছে রক্তের দাগ এবং হরিণের লোম। এবারও সালমান বলেন, ভুল অভিযোগ করা হচ্ছে।

সালমানের পাশাপাশি রেকর্ড করা হয় সাইফ আলি খান, সোনালি বেন্দ্রে, নীলমের বয়ানও।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৮ সালে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালীন যোধপুরের কঙ্কনি গ্রামে দুটি বিরল প্রজাতির কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের অভিযোগে দীর্ঘদিন ধরে সালমান খানের বিরুদ্ধে মামলা চলছিল। গত সপ্তাহেই প্রমাণের অভাবে অস্ত্র আইন সংক্রান্ত মামলায় বেকসুর খালাস পান বলিউডের সুলতান।






মন্তব্য চালু নেই