মেইন ম্যেনু

‘আমাকে বাঁচান, না হলে মারা যাব’

‘আমাকে বাঁচান, আমি আপনার কাছে সাহায্য চাই, না হলে আমি মারা যাব’-এভাবে আর্তনাদ করছিলেন পরিবার ও বাবা-মাকে ভালো রাখার স্বপ্ন নিয়ে সৌদিতে আসা মাদারীপুরের শম্পা বেগম।

জানা গেছে, পরিবারে আর কেউ না থাকায় বাধ্য হয়েই সৌদি আরব যান শম্পা বেগম। বাংলাদেশে পার্লারে কাজ করলেও সৌদিতে আরও ভালো উপার্জন করতে পারবে ‘দালাল’ জসীমের এমন আশ্বাসে জেদ্দায় যান তিনি। তবে পার্লারের কাজ না পেয়ে সেখানে গৃহকর্মী হিসেবে কাজ শুরু করেন।

এ প্রতিবেদককে শম্পা বলেন, সৌদিতে আসার আগে শরীরে একটা অপারেশন হয়েছে। তাই ভারি কোনো কাজ করতে পারি না। কাজ করতে না পারলে আমার ওপর নির্যাতন করা হয়। আমি এ কাজ করতে পারব না, আমাকে এখান থেকে উদ্ধার করুন। না হলে আমি মারা যাব।’

অন্যদিকে ‘দালাল’ জসীম এবং আসমা যে অফিস থেকে সৌদিতে আসেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বিষয়টা অস্বীকার করেন। বলেন, তাকে গৃহকর্মীর ভিসায় সৌদিতে পাঠানো হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই