মেইন ম্যেনু

আবারো পিছালো মাগুরার মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ মামলার চার্জ গঠনের দিন

মাগুরা প্রতিনিধি ॥ আবারো পিছালো দেশব্যাপী আলোচিত মাগুরার মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধ ও একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়েকৃত মামলার চার্জ গঠনের দিন ।

আজ বুধবার মাগুরা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ আরাফাত হোসেনের আদালতে চার্জ গঠনের দিন ধার্য্য ছিলো। রাষ্ট্র পক্ষের সময়ের আবেদনের ফলে আগামী ২৭ ফেব্র“য়ারী চার্জের জন্য সর্বশেষ দিন ধার্য্য করেছে আদালত। এদিকে মামলার বাদী পক্ষ বারবার রাষ্ট্র পক্ষে সময়ের আবেদন কারণে চার্জ গঠনের দিন পরিবর্তণ হওয়ার ন্যায় বিচার ব্যাহত হওয়ার আশংকা করছে।

মা নাজমা বেগমের কোলে চড়ে গুলিবিদ্ধ শিশু সুরাইয়া আদালতে আসে। এসময় সুরাইয়ার মা নাজমা জানান,সুরাইয়ার দেড় বছর বয়স হলেও সে এখনো হাটতে এবং কথা বলতে পারছেনা। ইতিমধ্যে গুলির আঘাত প্রাপ্ত ডান চোখ নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে সুরাইয়া ঢাকা মেডিকেলের ডাক্তারদের চিকিৎসাধীন আছে।

মামলার বাদী রুবেল ভুইয়া আক্ষেপ করে জানান, একবছর আগে আদালতে চার্জসীট দাখিল হলেও বিচার প্রক্রিয়া শুরু হলো না। সমস্ত আসামীরা জামিনে বেরিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আর রাষ্ট্র পক্ষ বারবার আদলতে সময়ের প্রার্থনা করছে। রাষ্ট্র পক্ষের এ রকম আচরণে আমরা ন্যায় বিচার ব্যাহত হওয়ার আশংকা করছি।

উল্লেখ্য,গত ২০১৫ সালের ২৩ জুলাই মাগুরা শহরের দোয়ারপাড় এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে মমিন ভূইয়া নামে একজন নিহত হন। এ সময় গভের্র শিশুসহ নাজমা বেগম নামে এক গৃহবধূ গুলিবিদ্ধ হন। এ ঘটনায় নিহত মোমিন ভুইয়ার ছেলে রুবেল ওই বছরের ২৬ জুলাই তার বাবা মোমিন খুন, মাতৃগর্ভে শিশু গুলিবিদ্ধের ঘটনায় মাগুরা সদর থানায় ১৬ জনের নামে মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীদের মধ্যে আজিবর নামে একজন পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়। পরবর্তীতে পুলিশী তদন্তে অপর একজনের নাম বাদ পড়ে তোতা, আয়নাল ও মুন্না নামে ৩ জনের নাম নতুন করে অন্তর্ভুক্ত হয় ও মোট ১৭ জনের নামে ২০১৫ সালের ৩০ নভেম্বর আদালতে চার্জসিট দাখিল করে।






মন্তব্য চালু নেই