মেইন ম্যেনু

আধুনিক পৌরসভা গড়তে নোয়াখালী পৌর মেয়রের মতবিনিময়

এম.এ আয়াত উল্যা, স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী : নোয়াখালী পৌরসভার সার্বিক উন্নয়ন কার্যক্রম অধিকতর গতিশীল ও বেগবান করা এবং একটি মডেল ও প্রযুক্তি নির্ভর আধুনিক পৌরসভা গড়ার লক্ষ্যে জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন পৌর মেয়র। বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুরে পৌর মেয়রের আয়োজনে নোয়াখালী পৌরসভা কার্যালয়ে জেলায় কর্মরত প্রিন্ট, ইলেকট্রনিকস, অনলাইন মিডিয়ার স্থানীয় প্রতিনিধি ও স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদক সহ শতাধিক সংবাদকর্মীর সাথে এ মতবিনিময় করেন। স্বাগত বক্তব্যে নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র সহিদ উল্যাহ খান সোহেল বলেন, ইতিহাস ও ঐতিহ্যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশের প্রাচীনতম একটি জেলা নোয়াখালী। যার প্রাণকেন্দ্র মাইজদী শহর – নোয়াখালী পৌরসভা। প্রথমেই ফিরিয়ে আমরা পৌরসভার হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে নানা উদ্যোগ নিয়েছি। এজন্য ঐতিহ্যের সমন্বয়ে আধুনিকভাবে গড়ে তোলা হবে নোয়াখালী পৌরসভাকে। আমরা সে পরিকল্পনা ধরে কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। আমি ক্ষমতায় এসেছি ছয় মাস হয়েছে। গত ছয় মাস কাউন্সিলরদের নিয়ে এসব বিষয়ে কয়েকটি বৈঠকের পর সাধারণ নাগরিকদের মতামতকেও গুরুত্ব দিয়ে কর্ম পরিকল্পনা সাজানো হয়েছে। যানযট বিষয়ে মেয়র বলেন, শহরের অন্যতম প্রধান সংকট যানজট। সড়কে অব্যবস্থাপনা, চালকদের সচেতনতার অভাব, যত্রতত্র পার্কিং, সিগন্যাল না মানা যানজটের প্রধান কারণ। পৌরসভায় যানজট কমাতে মাইজদী বাজার থেকে নোয়াখালী কলেজ রোড় হয়ে দত্তেরহাট পর্যন্ত এবং মাইজদী বাজার থেকে নতুন জেলাখানা রোড় হয়ে সিনেমা হল পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার এবং আধুনিক করা হবে। শহরজুড়ে নিরাপদ ও পরিকল্পিত পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। নাগরিক সেবা বিষয়ে মেয়র বলেন, তৃণমূলের মতামতকে প্রাধান্য দিতে কাউন্সিলরদের সাথে পরামর্শ করে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হবে। ওয়ার্ড ভিত্তিক বাজেট প্রণয়ন ও উন্নয়ন প্রক্রিয়ার বিকেন্দ্রীকরণ করা, ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সভা ও কেন্দ্রীয় নগর সভা করা হবে। পৌরসভার নাগরিকরা সেবা জন্য কর দেন। কিন্তু অনেক নাগরিকই জানেন না তাদের সেবার অধিকার সম্পর্কে। তাই ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সাথে নিয়ে “নিজের অধিকার জানুন” নামে একটি সেবা কর্মসূচি চালু করা হবে। শহরের সৌন্দর্য বিষয়ে মেয়র বলেন, নিরিবিলি শহর হিসেবে যে পরিচিতি তার এখন হুমকির পর্যায়ে। তাই জনবান্ধব, পরিচ্ছন্ন, পরিবেশবান্ধব, আলোকিত, উন্নত নাগরিক জীবন গড়ে তোলার জন্য মাইজদীকে রাস্তা ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে নিরিবিলি শহরের রূপ ধরে রাখা হবে। মাইজদী শহরের আধুনিকতা এক সময় দেশ ছাড়িয়ে বর্হিবিশ্বেও আলো ছড়াবে এ স্বপ্নের কথা জানান তিনি। পরে সাংবাদিকরা তাদের বক্তব্যে নোয়াখালী পৌরসভাকে অধিকতর গতিশীল ও বেগবান করা এবং একটি আধুনিক পৌরসভা গড়ার লক্ষ্যে পৌর মেয়রকে বিভিন্ন বিষয়ে আলোকে মতামতের আলোকে পরামর্শ দেন। এসময় সাংবাদিক, পৌরসভার কাউন্সিলরবৃন্দ, নির্বাহী প্রকৌশলী, সচিব সহ কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে সাংবাদিকদের সৌজন্যে এক প্রীতি ভোজের আয়োজন করেন।






মন্তব্য চালু নেই