মেইন ম্যেনু

আত্মরক্ষায় নতুন নতুন আইন করছে সরকার : বি.চৌধুরী

সরকার আত্মরক্ষায় নতুন নতুন আইন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।
রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক গুম প্রতিরোধ দিবস ২০১৪ উপলক্ষে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ এই গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে।
বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘গণতান্ত্রিক সরকার মানে কৃতকর্মের জন্য তার জবাবদিহিতা থাকতে হবে। তার কথাবার্তা ও আচরণ হতে হবে গণতান্ত্রিক। কোনো অগণতান্ত্রিক সরকারের (বর্তমান সরকারের) কথাবার্তা কখনো গণতান্ত্রিক সরকারের মতো হবে এটা আশা করা যায় না। এরা গণতন্ত্র বিরোধী সরকার। নিজেদের রক্ষায় তারা নতুন নতুন আইন করছে। যার বড় প্রমাণ হচ্ছে বিচারপতিদের অভিশংসন।’
সাবেক এ রাষ্ট্রপতি আরো বলেন, ‘র‌্যাব-পুলিশের সংখ্যা বাড়ানো হয় দেশের আইন-শৃঙ্ক্ষলা ও মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য। কিন্তু এই সরকার দেশের মানুষকে গুম-খুন করার জন্য র‌্যাব-পুলিশকে নিয়োগ দেয়। এই র‌্যাব-পুলিশ সরকারেরই একটি অংশ। সুতরাং এরা যদি মানুষ হত্যা করে তাহলে তার দায় সরকারের নিতে হবে। এর জন্য জবাবদিহি করতে হলে সরকারকেই করতে হবে।’
গোলটেবিল বৈঠকে সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিচারপতি আবদুর রউফ সরকারকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘রাজনীতির ক্ষেত্রে কখনোই এতটা উগ্র হওয়া উচিৎ নয়। রাজনীতিতে ভাষার যে নোংরা প্রয়োগ হয়েছে, তাতে করে আমাগী প্রজন্ম আর রাজনীতিকদের শ্রদ্ধা-সম্মান করবে না।’
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সভাপতি শওকত মাহমুদ প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, ‘আপনার হৃদয়ে কি একটুও করুণা জাগ্রত হয় না? বাংলাদেশের মানুষ কি শুধু একজনের জন্যই কাঁদবে? অন্যকারো জন্য কাঁদবে না?’
আজকে জনগণ অনুভূতিহীন, এই সরকারের কাছে আর বিচার চায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) একাংশের সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী সভাপতিত্বে গোলটেবিল বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজের মহাসচিব এম এ আজিজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আজিজ, শিক্ষক কর্মচারী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যক্ষ মো. সেলিম ভুইয়া প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই