মেইন ম্যেনু

অবশেষে বাবা-মায়ের কোলে নিখোঁজ সুমাইয়া

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর থেকে অপহৃত শিশু সুমাইয়া বাবা-মায়ের কোলে ফিরে এসেছে। ২৪ দিন খোঁজাখুঁজির পর তাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে উদ্ধারের পর বৃহস্পতিবার সকালে শিশুটিকে তার বাবা-মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় হাসিমুখে দেখা যায় পরিবারটিকে। ব্রিফিং করেন ডিএমপি লালবাগ জোনের ডিসি ইব্রাহিম খান।

এর আগে বুধবার রাতে রাজধানীর কদমতলী এলাকার একটি বাড়ি থেকে সুমাইয়াকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে সাবিনা আক্তার বৃষ্টি (২৮) নামের এক নারী ও তার বাবা সিরাজুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের লালবাগ জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মোহাম্মদ নাজির আহমেদ খান বলেন, ‘প্রযুক্তি ও সোর্সের মাধ্যমে আমরা জানতে পারি অপহরণকারী ওই নারী কদমতলী থানা এলাকায় অবস্থান করছে। পরে ওই এলাকায় ব্লক রেইড দিয়ে গভীর রাতে পাটেরগাঁওয়ের একটি বাড়ি থেকে শিশু সুমাইয়াকে উদ্ধার করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আমরা জানতে পেরেছি অপহরণের সঙ্গে জড়িত বৃষ্টি বৃষ্টি নারী ও শিশু পাচারকারী চক্রের সদস্য। তিনি গত কিছুদিনের মধ্যে কয়েকবার ভারত গিয়েছিলেন বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। অপহৃত শিশু সুমাইয়াকেও সময়-সুযোগ বুঝে ভারতে পাচার করা হতো বলে আমরা মনে করছি। তবে তার আগেই শিশুটিকে উদ্ধার করতে পেরেছি।’

অতিরিক্ত উপ-কমিশনার নাজির আহমেদ জানান, ‘গত ২ এপ্রিল কামরাঙ্গীরচরের বড়গ্রাম এলাকায় বাড়ির সামনে থেকে সুমাইয়া নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় সুমাইয়ার বাবা জাকির হোসেন গত ২৪ এপ্রিল কামরাঙ্গীরচর থানায় একটি অপহরণ মামলা করেন। জাকির হোসেন স্থানীয় একটি স্টিল কারখানার কর্মচারী। শিশুটিকে আপাতত বাবা-মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হলেও তাদের সবাইকে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে সুমাইয়াকে আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হবে।’






মন্তব্য চালু নেই